বুধবার, ২৭শে অক্টোবর, ২০২১ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ রাত ৪:২১
Home / আন্তর্জাতিক / নিউইয়র্কের চেয়ে ৩৩ গুণ বড় হবে সৌদি আরবের ‘নিওম’ শহর!

নিউইয়র্কের চেয়ে ৩৩ গুণ বড় হবে সৌদি আরবের ‘নিওম’ শহর!

আজকের পৃথিবী সৌদি আরবকে চূড়ান্ত রক্ষণশীল দেশ হিসেবেই চেনে। কিন্তু গত সপ্তাহে ‘নিওম’ নামে এক শহর তৈরীর ঘোষণা দিয়েছেন সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহম্মদ বিন সালমান। যেখানে কোনো বিধিনিষেধ বা বিভাজন থাকবে না বলে আশ্বাস দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে সৌদি যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমান সারা বিশ্ব থেকে জাঁদরেল সব শিল্পপতিকে ডেকেছিলেন কয়েকদিন আগেই; সৌদি আরবে বিনিয়োগ সম্ভাবনার কিছু কিছু ক্ষেত্র তুলে ধরেছেন।

বিভিন্ন প্রকল্পের মধ্যে এমন একটি প্রকল্পের কথা উল্লেখ করেছেন, যা রীতিমতো তাক লাগিয়ে দেওয়ার মতো। তিনি বলেন, ২৫ হাজার বর্গকিলোমিটারের একটি শহর, গোটা বিশ্বের প্রযুক্তি গবেষণার রাজধানী, সামাজিক বিধিনিষেধ থেকে মুক্ত, ট্রাফিক মুক্ত, পুরোপুরি অপ্রচলিত শক্তিচালিত। এর নাম হবে নিওম। নিওম হবে ভবিষ্যৎ পৃথিবীর ‘স্বপ্নদ্রষ্টা’দের শহর।

প্রায় ৫০০ বিলিয়ন ডলার খরচ করে গড়ে তোলা ওই শহরটির বিশেষ বৈশিষ্ট হলো- এটি হবে সম্পূর্ন সৌরচালিত। জানা গেছে, প্রাথমিক অবস্থায় নিওম শহরের মোট আয়তন দাঁড়াবে ২৬ হাজার ৫০০ বর্গ কিলোমিটার। আর যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটির আয়তন প্রায় ৮০০ বর্গ কিলোমিটার।

এছাড়া রাশিয়া টুডের এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে নিওম শহরটি আয়তনের দিক থেকে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরটির চেয়ে অন্তত ৩৩ গুণ বড় হবে। শহরটি গড়ে তোলা হবে জর্ডান এবং মিশরের সীমান্ত সংলগ্ন এলাকায়।

শহরটি কেমন হবে এর ধারণা দিতে একটি প্রমোশনাল ভিডিও প্রকাশ করেছে সৌদি আরব। ভিডিওতে দেখা গেছে, অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ওই শহরটি হবে সামজিক বিধি নিষেধ থেকে পুরোপুরি মুক্ত। এখানে থাকবে উন্মুক্ত পর্যটন এলাকা। শহরে হিজাব ছাড়াই চলা ফেরা করতে পারবে নারীরা।

শুধু তাই নয়, পুরুষের পাশাপাশি কর্মক্ষেত্রে সমানতালে অংশ নেবে তারা। সৌদি আরবের মতো অতি রক্ষণশীল দেশে এমন শহর গড়ার পরিকল্পনা বিস্ময় জাগিয়েছে সারা পৃথিবীর।

সৌদি আরবের ভবিষ্যত বাদশাহ মোহম্মদ বিন সালমান এও জানিয়েছেন, নিওম হয়ে গোটা পৃথিবীর প্রযুক্তি গবেষণার রাজধানী ও সীমাহীন সম্ভাবনার এক শহর।

ধর্মীয় রক্ষণশীলতা থেকে বের হয়ে সৌদি আরব উদার ইসলামী শাসন ব্যবস্থা কায়েম করতে যাচ্ছে। এ প্রসঙ্গে মোহম্মদ বিন সালমান বলেছেন, অতীতে আমরা এমন রক্ষণশীল ছিলাম না। আমরা যেখানে ছিলাম, সেখানেই ফিরতে চাই।’

অপরদিকে শিল্পপতিদের জমায়েতে যুবরাজ সালমান জানিয়েছেন, তেলনির্ভরতা থেকে ক্রমশ অপ্রচলিত শক্তির দিকে সরতে চাইছে সৌদি আরব। সৌদি অর্থনীতি পেট্রোলিয়াম নির্ভরশীলতাও কিছুটা কমাতে চায়। সব মিলিয়েই নিওম সুপারসিটির ভাবনা। গোটা বিশ্বের প্রযুক্তি গবেষণার রাজধানী হিসেবে নিওমকে গড়ে তুলতে চাইছে দেশটি। ৫০ হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ ধরা হয়েছে। #-বিডিমর্নিং

About Islam Tajul

mm

এটাও পড়তে পারেন

বিশ্ব ইজতেমায় গেলে কি হজ্বের সওয়াব মিলে?

খতিব তাজুল ইসলাম: তাবলীগ জামাতের সংকট ও কয়েকটি প্রশ্ন? তাবলীগ জামাত নিয়ে যে সংকট সেটা ...