বুধবার, ২৭শে অক্টোবর, ২০২১ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ রাত ৩:৫১
Home / দেশ-বিদেশ / জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

অনলাইন ডেস্ক : অর্থ পাচারের অভিযোগে করা মামলায় ভারতের মুম্বাইয়ের বিশেষ একটি আদালত সে দেশের ইসলামি বক্তা জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে অজামিনযোগ্য গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন।

দেশটির আইন প্রয়োগকরী দপ্তর বলছে, এই মামলায় এ বছরের জানুয়ারি মাসে জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে প্রথম সমন জারি করা হয়। এরপর আরও তিনবার সমন জারি করা হয়। কিন্তু তিনি আদালতে হাজির হননি। তদন্তে সহযোগিতা করেননি। এরপর গত বৃহস্পতিবার জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়। আইএএনএসের খবরে জানানো হয়, জাকির নায়েক এখন সৌদি আরবে রয়েছেন।

দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, আইন প্রয়োগকারী দপ্তর সৌদি আরবের আদালতে চিঠি দিয়ে অনুরোধ জানাবে। বাইরের দেশের আদালত থেকে বিচারিক সহায়তা নিতে চিঠির মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক অনুরোধ জানানো হবে।

ওই দপ্তরের বরাত দিয়ে আইএএনএস ও টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের খবরে জানানো হয়, জাকির নায়েকের বেসরকারি সংস্থা (এনজিও) ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন ও তাঁর আত্মীয়স্বজনদের অ্যাকাউন্টে ২০০ কোটি রুপি লেনদেন হয়েছে।

ইসলামি বক্তা জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে ধর্মীয় ও জাতিগত গোষ্ঠীর মধ্যে শত্রুতা উসকে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। ভারতের জাতীয় তদন্ত সংস্থা (এনআইএ) বিষয়টি তদন্ত করছে।

গত বছরের ডিসেম্বর ওই দপ্তর জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করে।

ঢাকার গুলশানে হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় ভয়াবহ জঙ্গি হামলার পর হামলাকারীদের দুজনের ফেসবুক থেকে জানা যায়, তাঁরা জাকির নায়েকের বক্তব্যে উদ্বুদ্ধ হয়েছিলেন। ফলে ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা জাকির নায়েকের মালিকানাধীন পিস টিভি ও তাঁর ভূমিকা নিয়ে বিতর্ক ওঠে। এ টিভি চ্যানেলে দীর্ঘ সময় ধরে জাকির নায়েকের ধর্মীয় বক্তৃতা প্রচারিত হয়। বাংলাদেশে পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধের ঘোষণা দেয় সরকার। ভারতেও জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় সরকারসহ বিভিন্ন পর্যায় থেকে তদন্ত শুরু হয়। এরপর থেকে গ্রেপ্তার এড়ানোর কৌশল হিসেবে জাকির নায়েক দীর্ঘদিন ধরে সৌদি আরবে বসবাস করছেন।

About Abul Kalam Azad

mm

এটাও পড়তে পারেন

ইদলিবের মাধ্যমেই সিরিয়ার বিজয় সুচিত হবে ইনশাআল্লাহ!

ইদলিবে শিয়া মুনাফেক রুশ কাফেরদের এক কথায় তুলাধুনা চলবে……. প্রস্তুত তুরস্কের নৌবাহিনী সেনাবাহিনী বিমানবাহিনী। ইতিমধ্যেই ...