রবিবার, ২৬শে জুন, ২০২২ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ বিকাল ৫:১৮
Home / কওমি অঙ্গন / হাটহাজারীতে সম্মিলিত বৈঠক শেষ; গুরুত্বপূর্ণ ৩ সিদ্ধান্ত

হাটহাজারীতে সম্মিলিত বৈঠক শেষ; গুরুত্বপূর্ণ ৩ সিদ্ধান্ত

আল্লামা আহমদ শফী’র সঙ্গে মোসাফাহা করছেন মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ

কমাশিসা : হাটহাজারীতে আল্লামা আহমদ শফীর নেতৃত্বে কওমি মাদরাসা বোর্ডের নেতাদের সম্মিলিত বৈঠক সম্পন্ন হয়েছে। সকাল ১০টায় শুরু হওয়া বৈঠক শেষ হয় বেলা দুইটায়।

সভায় কওমি মাদরাসা স্বীকৃতির জন্য আগামীর পথ পরিক্রমা নির্ধারণে গুরুত্বপূর্ণ একটি সিদ্ধান্ত ও দুটি কমিটি করা হয়েছে।

বৈঠকে ছিলেন, ইকরা বাংলাদেশের মহা পরিচালক মাওলানা ফরিদ উদ্দীন মাসঊদ, ইত্তেহাদুল মাদারিসের চেয়ারম্যান আল্লামা সুলতান যওক নদভী, মহাসচিব আল্লামা আবদুল হালিম বুখারী, তানজিমুল মাদারিস উত্তরবঙ্গের মাওলানা আরসাদ রহমানী, বেফাকুল মাদারিস গওহরডাঙ্গার চেয়রম্যান মুফতী রুহুল আমীন, বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের সিনিয়র সহ-সভাপতি আল্লামা আশরাফ আলী, আল্লামা আযহার আলী আনোয়ার শাহ, মাওলানা নূর হুসাইন কাসেমী, মাওলানা সাজিদুর রহমান, মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস, মাওলানা যোবায়ের আহমদ চৌধুরী, আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী, মুফতি মুহাম্মদ ফয়জুল্লাহ, মাওলানা মাহফুযুল হক, মাওলানা মুসলেহ উদ্দীন রাজু, মাওলানা নূরুল আমীন, মাওলানা আনাস মাদানী, মাওলানা নূরুল ইসলাম প্রমুখ।

বৈঠকে গুরুত্বপূর্ণ তিন সিদ্ধান্তের মধ্যে রয়েছে, কওমি মাদরাসার স্বীকৃতি দারুল উলুম দেওবন্দের আদলে শুধুমাত্র দাওরায়ে হাদিসকে এমএ’র মান দেয়া। এছাড়াও সম্মিলিত কাজ ও স্বীকৃতির জন্য ‘কওমি মাদরাসার সনদের মান বাস্তবায়ন কমিটি’ নামে ২২ সদস্যের একটি কমিটি এবং সরকারের সঙ্গে লিয়াজোঁ করার জন্য ৫ সদস্যের আরেকটি কমিটি গঠন করা হয়।

বৈঠকে একাধিক সূত্র সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছে।

বৈঠকে উপস্থিত নেতৃবৃন্দ কওমি মাদরাসার স্বীকৃতি ইস্যুতে আগামীতে সম্মিলিতভাবে কাজের সিদ্ধান্ত নেন। এছাড়াও কারো ফাঁদে পা না দিয়ে স্বকীয়তা রক্ষা করে স্বীকৃতি আদায়ের চেষ্টা অব্যাহত রাখার দাবি জানান।

faizullah

মুফতি ফয়জুল্লাহ ও মুফতি রুহুল আমিনের মধ্যে হাস্যোজ্জ্বল কথোপকথন

স্বীকৃতি আদায়ের লক্ষ্যে ‘কওমি মাদরাসার সনদের মান বাস্তবায়ন কমিটি’ নামে ২২ সদস্যের কমিটিতে রয়েছেন, (বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ থেকে) ১. আল্লামা আশরাফ আলী, ২. মাওলানা আনোয়ার শাহ, ৩. মাওলানা নূর হোসেন কাসেমী, ৪. মাওলানা সাজিদুর রহমান, ৫. মুফতি মুহাম্মদ ওক্কাস, ৬. মাওলানা আবদুল কুদ্দুস, ৭. মাওলানা মাহফুজুল হক।

(চট্টগ্রামের বোর্ড ইত্তেহাদুল মাদারিস থেকে) ৮. আল্লামা সুলতান যওক নদভী, ৯. আল্লামা আবদুল হালিম বোখারী, ১০. মাওলানা আবু তাহের নদভী।

(বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া গহরডাঙ্গা বোর্ড থেকে) ১১. মুফতি রুহুল আমিন, ১২. মাওলানা আক্রাম আলী, ১৩. মাওলানা শামসুল হক।

(সিলেটের আযাদ দীনি এদারা বোর্ড থেকে) ১৪. মাওলানা আবদুল বছির, ১৫. মাওলানা এনামুল হক, ১৬. মাওলানা ইউসুফ খাদিমানী।

(উত্তরবঙ্গের বোর্ড তানজিমুল মাদারিসিল কওমিয়ার পক্ষ থেকে) ১৭. মুফতি আরশাদ রহমানী, ১৮. মহাসচিব মাওলানা আবদুল হক্কানী, ১৯. মাওলানা মাহমুদুল আলম।

(বেফাকুল মাদারিসিদ দীনিয়া বাংলাদেশের পক্ষ থেকে) ২০. মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ, ২১. মাওলানা এমদাদুল্লাহ কাসেমী, ২২. মাওলানা মুহাম্মদ আলী।

বৈঠকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে যোগাযোগ রক্ষায় ৫ সদস্যের লিয়াজো কমিটি গঠন করা হয়৷

তারা হলেন: ১. আল্লামা ফরিদ উদ্দীন মাসউদ ২. মুফতী রুহুল আমীন ৩. মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস ৪. মাওলানা মাহফুজুল হক ৫. মুফতী নুরুল আমীন৷

বৈঠকে বোর্ডের বাইরে থাকা প্রতিষ্ঠান এবং ওলামায়ে কেরামের মাঝে বৃহত্তর ঐক্য প্রক্রিয়া এগিয়ে নেয়ার প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়৷

About Abul Kalam Azad

mm

এটাও পড়তে পারেন

কওমি মাদরাসা কল্যাণ ট্রাস্ট, বাংলাদেশ

খতিব তাজুল ইসলাম ট্রাস্টের প্রয়োজনীয়তাঃ কওমি অংগন একটি স্বীকৃত ও তৃণমূল প্লাটফর্ম। দেশ ও জাতির ...