সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ বিকাল ৩:৩৮
Home / অনুসন্ধান / কায়েমী স্বার্থান্বেষী ছাড়া সবাই কওমী সনদের স্বীকৃতি চান

কায়েমী স্বার্থান্বেষী ছাড়া সবাই কওমী সনদের স্বীকৃতি চান

কওমী শিক্ষাসনদ স্বীকৃতি বাস্তবায়ন পরিষদের সংবাদ সম্মেলনে মাওলানা ইয়াহইয়া মাহমুদ

sikriti-newsটানা আঠারো দিন সারাদেশে সফর করে কায়েমী স্বার্থান্বেষী ছাড়া সবাই স্বীকৃতি চান বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন কওমী শিক্ষাসনদ স্বীকৃতি বাস্তবায়ন পরিষদের সদস্যসচিব মাওলানা ইয়াহইয়া মাহমুদ। তিনি বলেন, কায়েমী কিছু স্বার্থান্বেষী, জামাত-শিবিরের অনুসারী, ষড়যন্ত্রকারী সর্বজন শ্রদ্ধেয় বুযুর্গ হযরত আহমদ শফীর নামের ছদ্মাবরণে বেফাকের নাম ভাঙিয়ে কওমী মাদরাসা সনদের স্বীকৃতির বিষয়ে হীন ষড়যন্ত্র করে চলেছে। তিনি ষড়যন্ত্রকারীদের এই ষড়যন্ত্র থেকে দেশবাসীকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান।

রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর ) দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে কওমী শিক্ষাসনদ স্বীকৃতি বাস্তবায়ন পরিষদ আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ইয়াহইয়া মাহমুদ এসব কথা বলেন।

কারা ষড়যন্ত্র করছে সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রাজনৈতিক স্বার্থান্বেষী চক্র ও মওদুদীবাদের দোসররা কখনোই কওমী মাদরাসার কোনো উন্নতি চায় না। স্বীকৃতির বিষয়ে কোন্ দল ক্ষমতায় আছে তা বিবেচ্য নয় উল্লেখ করে মাওলানা মাহমুদ বলেন, বেগম জিয়া স্বীকৃতির জন্য যে উদ্যোগ নিয়েছিলেন তখন তো কেউ শর্তজুড়ে দেননি। এখন বিরোধিতার জন্যই কেবল কেউ কেউ বিরোধিতা করছে।

মাওলানা মাহমুদ স্বীকৃতি দিতে কারো চোখ রাঙানিকে পরওয়ার না করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আহ্বান জানান।

মুফতি আবুল কাসেমের সভাপতিত্বে ও মাওলানা মাসউদুল কাদিরের পরিচালনায় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মাওলানা দেলোয়ার হোসাইন সাইফী, মুফতি ইবরাহিম শিলাস্তানী, মাওলানা ইমদাদুল্লাহ কাসেমী, মাওলানা সদরুদ্দীন মাকনুন, মাওলানা আইয়ুব আনসারী, মাওলানা হাবিবুল্লাহ গুলজার, মাওলানা আতাউর রহমান আরিফী, মাওলানা মুহাম্মদ শোয়াইব প্রমুখ।

মাওলানা মাহমুদ কওমী মাদরাসার স্বকীয়তা বজায় রেখে দারুল উলূম দেওবন্দের আট মূলনীতির উপর ভিত্তি করে স্বীকৃত দিতে কিছু দাবিনামা উপস্থাপন করেন। এক. কওমি মাদরাসার নেসাব ও নেযামে তালীমে কোনোরূপ হস্তক্ষেপ করা চলবে না। দুই. আহলে সুন্নাহ ওয়াল জামায়াতের আকিদা সম্পূর্ণভাবে অক্ষুণ্ন রাখতে হবে। তিন. মাদরাসার পরিচালনা পদ্ধতিতে হস্তক্ষেপ করা চলবে না। চার. কওমী মাদরাসা কখনও এমপিওভুক্ত হবে না। পাঁচ. কোনো মাদরাসা প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে সরকার কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ করতে পারবে না। এতদসংক্রান্ত নীতিমালা প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট কমিটি প্রণয়ন করবে। ছয়. প্রচলিত কওমী মাদরাসা বোর্ডসমূহ তাদের স্ব-স্ব বিধান অনুযায়ী পরিচালিত হবে। সাত. ২০১৬ সালের ভেতরই স্বীকৃতিদান কার্যক্রম সুসম্পন্ন করতে হবে।

কওমী শিক্ষাসনদ স্বীকৃতি বাস্তবায়ন করতে সংবাদ সম্মেলনে বেশ কিছু কর্মসূচিও ঘোষণা করা হয়—. সনদের স্বীকৃতি আদায়ে জনমত তৈরির জন্য কওমী মাদরাসার শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের স্বাক্ষর সংগ্রহ। . আগামীতে রাজধানীতে সেমিনার ও একটি মহাসমাবেশ করা।. রাষ্ট্রের উচ্চপদস্থ দায়িত্বশীলদের সঙ্গে যোগাযোগ বৃদ্ধি।

সুত্র: qaominews.com

About Islam Tajul

mm

এটাও পড়তে পারেন

পুলিশি নির্যাতনে হত্যার বিচার চাইবেন কার কাছে?

ডক্টর তুহিন মালিক: (১) মাত্র ১০ হাজার টাকার জন্য সিলেটে পুলিশ ফাঁড়িতে যুবককে রাতভর নির্যাতন ...