সোমবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ রাত ১২:০৩
Home / আকাবির-আসলাফ / কওমি সংস্কারে আল্লামা থানবী রহঃ এর চিন্তাধারা

কওমি সংস্কারে আল্লামা থানবী রহঃ এর চিন্তাধারা

সংগ্রহেঃ জুলফিকার মাহমুদী ৷

thanovi(এক) উলামায়ে কেরামের জন্য উচিত প্রাচীণ নেসাব কে সংস্কার করত বহুবিধ নেসাব সংযোজন করা ৷ যাতে ইসলামী শিক্ষা সকলের জন্য উনমুক্ত থাকে ৷ কেননা একই নেসাব সব সময় সকলের জন্য উপযোগী নাও হতে পারে ৷ আমাদের সমাজে মুসলমানদের কয়েকটি স্তর বিন্নাস আছে ৷ এক শ্রেণী লোক যারা বিত্তবান ৷ অপর শ্রেণী লোক যারা দরিদ্র -অভাবী ৷ এদের মধ্যে আবার ভিন্ন ভিন্ন স্তর আছে ৷ প্রথমতঃ দ্বীনী শিক্ষায় অর্জনে যথেষ্ট সময় ব্যায় করতে পারবে ৷ তাদের জন্য তৈরী হবে এক নেসাব ৷ দ্বিতীয়ঃ দ্বীনী শিক্ষা অর্জনে আগ্রহ প্রচুর কিন্তু সময় কম, তাদের জন্য হবে এক রকম নেসাব ৷ তৃতীয়তঃ আরবী যানেনা কিন্তু দ্বীনী শিক্ষায় সময় খরচ করতে পারবে ৷ তাদের জন্য তৈরী হবে আরো এক নেসাব ৷ চতুর্থতঃ যারা বয়োবৃদ্ধ ,আক্ষরিক জ্ঞান তাদের নেই ৷ উলামায়ে কেরামের জন্য উচিত তাদের মেযায মুতাবিক ইলমে দ্বীনের ফারাইজ বিধি বিধান সমুহের এক নেসাব তৈরী করতঃ জামাত বন্ধী করে তাদের মুনাসিব সময়ে ব্যবস্থা করা ৷ যাতে তারাও দ্বীনের উপর চলতে পারে ৷ এটি সাপ্তাহিক / মাসিক ভাবেও ভাগকরা যাবে ৷ পঞ্চমঃ দ্বীনী শিক্ষায় আগ্রহী কিন্তু হত দরিদ্র ৷ আবার সময় ও প্রচুর ব্যয় করা তাদের জন্য সম্ভব নয় ৷ তাদের জন্য ও একটি ব্যবস্থা করতে হবে ৷ ষষ্ঠঃ আগ্রহ আছে অর্থও আছে কিন্তু সময় তাদের কম ৷ তাদের জন্যও একটি নেসাব করতে হবে ৷ একটি বিষয় আমাদের খিয়াল করা উচিত আলিম হওয়ার যোগ্যতা আল্লাহ সকল মানুষকে দেননি কুরআনের আয়াত তাই প্রমান করে ৷ যেমন فلو لا نفر من كل فرقة منهم طائفة ليتفقهوا في الدين ـــــــــ এখানে আল্লাহ طائفة বলেছেন ৷ এর দারা বুঝা যায় সকলের জন্য আলিম বা ইলমে দ্বীনের পুর্নাঙ্গ শিক্ষা সম্ভব নয় ৷ পারবেও না ৷ তাইতো আমাদের আকাবির আসলাফরা ইলমে দ্বীনের পুর্নাঙ্গ শিক্ষার জন্য যাচাই বাচাই করে ছাত্র নির্বাচন করতেন ৷ উপরোক্ত আলোচনা বিশ্লেষণ করলে যা বেড়িয়ে আসে তার সারমর্ম হল ৷ ( ক) ইলমে দ্বীনের প্রাথমিক শিক্ষা মুসলিম সমাজের সর্বস্তরে বিস্তৃত করতে হবে ৷ যদিও এটি ইসলামী সরকারের কাজ ৷ যেহেতু এটি সম্ভব নয় তাই উলামায়ে কেরাম কে এ কাজে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এগিয়ে আসতে হবে ৷ নতুবা আখিরাতে মাছউল হবেন ৷ আর এখান থেকেই উচ্চ শিক্ষার ,বা মাধ্যমিক শিক্ষার জন্য ছাত্র বাচাইয়ের প্রাথমিক কাজ করতে হবে ৷ প্রথমিক শিক্ষাকে এমন ভাবে বিস্তৃত করতে হবে যেন একজন মুসলিম বাচ্ছাও এ থেকে গাফিল না থাকে ৷ এখানে যাদের সময় কম হত দরিদ্র তাদের গুরুত্ব দিন বেশি ৷ কারন ওরা দরিদ্রতার কারনে যে কোন সময় ঝরিয়ে পড়তে পারে ৷ (ক্রমশঃ)thanovi1

About Islam Tajul

mm

এটাও পড়তে পারেন

কওমি মাদরাসা কল্যাণ ট্রাস্ট, বাংলাদেশ

খতিব তাজুল ইসলাম ট্রাস্টের প্রয়োজনীয়তাঃ কওমি অংগন একটি স্বীকৃত ও তৃণমূল প্লাটফর্ম। দেশ ও জাতির ...