সোমবার, ১৫ই জুলাই, ২০২৪ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ ভোর ৫:২০
Home / এশিয়া / প্রসঙ্গ: ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয়

প্রসঙ্গ: ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয়

লিখেছেন: এহসান বিন মুজাহির
dewbondসম্প্রতি বাংলাদেশে স্বতন্ত্র ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এজন্য শুরুতেই মহান রাব্বে কারীমের দরবারে অগণিত শোকর আদায় করছি,আলহামদুলিল্লাহ। শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি প্রয়াত আলেম-ওলামা, পীর-মাশায়েখ যাঁরা এদেশে একটি ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার জন্য মিছিল-মিটিং, সমাবশে, মানববন্ধন, স্মারকলপিসিহ বিভিন্ন র্কমসূচি পালন করেছেন। তাঁদের মধ্যে অন্যতম কয়েকজন হলেন-মরহুম শায়খুল হাদিস আল্লামা আজিজুল হক, (রাহ.) মরহুম চরমোনাইর পীর ফজলুল করীম (রাহ.), ফুলতলীর পীর মরহুম মাওলানা আবদুল লতীফ চৌধুরী, (রাহ.) খতিব মাওলানা উবায়দুল হক জালালাবাদী, (রাহ.) মরহুম মুফতি ফজলুল হক আমিনী, এম এ মান্নান, (রাহ.) শর্ষীনার পীর মাওলানা মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম, মাওলানা এমদাদুল হক আড়াইহাজারীসহ (রাহ.) বরেণ্য প্রয়াত ওলামায়ে কেরাম। মরহুম ওলামায়ে কেরামগণের দরজা বুলন্দির জন্য মহান আল্লাহ তায়ালার শাহী দরবারে আন্তরিক দোয়া কামনা করি। আন্তরিক অভিন্দন ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি জীবিত হজরত ওলামায়ে কেরামসহ বিভিন্ন ইসলামী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের প্রতি, যারা স্বতন্ত্র ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহণসহ সক্রিয় প্রচেষ্ঠা এবং সীমাহীন ত্যাগ স্বীকার করেছেন। বিশেষত আরবি বিশ্যবিদ্যালয়য়ের আন্দোলনরে সাথে সম্পৃক্ত ইসলামী সংগঠন, বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদাররেছীন, খেলাফত মজলিস, ইসলামী ঐক্যজোট, জমিয়তে উলামা, খেলাফত আন্দোলন, বাংলাদেশ আন্জুমানে আল ইসলাহ, ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র মজলিস, বাংলাদেশ জমিয়তে তালাবায়ে আরাবিয়া, বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা, বাংলাদেশ আন্জুমানে তালামিযে ইসলামিয়াসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য গণ ও ছাত্র সংগঠনের সক্রিয় নেতৃবৃন্দের। দীর্ঘদিন পর হলেও বর্তমান সরকারের আমলে দেশের লাখ লাখ মাদ্রাসা শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর প্রায় শত বছরের প্রাণের দাবি ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবে প্রতিষ্ঠা লাভ করেছে। এদেশের সর্বস্তরের আলেম-ওলামা, পীর-মাশায়খে, ইসলামী নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন ইসলামী ছাত্র সংগঠন আরবী বিশ্যবিদ্যালয়ের জন্য আন্দোলন-সংগ্রাম করে আসছেন। অবশেষে গত ২৩ আগস্ট ধানমণ্ডির অস্থায়ী কার্যালয়ে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম উদ্বোধন করেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।
সম্প্রতি বাংলাদেশে ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যাল প্রতিষ্ঠিত হওয়ায় দেশে গবেষণা, উচ্চ শিক্ষার প্রসারে এই বিশ্ববিদ্যালয় আশানুরূপ অবদান রাখবে বলে আশাবাদি। দেশি-বিদেশি শিক্ষার্থী ও ইসলামী স্কলারদের পদচারণায় আরবি ভার্সিটি ক্যাম্পাস মুখরিত থাকবে। দেশের প্রথম এ ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয় মুসলিম মিল্লাতের জন্য অতি গৌরবের। এই বিশ্ববিদ্যালয়কে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে, সুনাম ছড়াতে, শিক্ষার মান বাড়াতে, সর্বোপরি একটি আদর্শ বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপ দিতে আলেম-ওলামাসহ সর্বস্তরের মানুষকে আরো এগিয়ে আসতে হবে। এতোদিন ভার্সিটি শুধু স্বপ্ন ছিলো। আজ তা দীর্ঘদিনের স্বপ্ন সাধনার বাস্তবায়ন। গত ৬ সেপ্টেম্বর সুদীর্ঘকালের সকল সন্দেহ-সংশয়ের অবসান ঘটিয়ে শিক্ষামন্ত্রী চলতি শিক্ষাবর্ষে (২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষ) ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ে ফাযিল (অনার্স ও পাস) কোর্সের ভতির্র কার্যক্রম শুরুর নির্দেশনা দিয়েছেন। আলহামদুল্লিাহ ইতোমধ্যে ভার্সিটির কার্যক্রমও যথারীতি শুরু করেছেন ভার্সিটি কর্তৃপক্ষ।
দেশের স্নাতক (ফাজিল) ও স্নাতকোত্তর (কামিল) মাদ্রাসাগুলোর অধিভুক্তি, পাঠ পরিচালনা, পরীক্ষা গ্রহণ, পরিদর্শন, কোর্স অনুমোদনসহ সকল শিক্ষা কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সদ্য প্রতিষ্ঠিত ইসলামী আরবী বিশ্যবিদ্যালয়কে। এর আগে ফাজিল ও কামিল মাদ্রাসাগুলোর নিয়ন্ত্রণ কুষ্টিয়ায় অবস্থিত ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ছিল। গতকালের প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ফাজিল ও কামিলের সকল কার্যক্রম আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়। সরকারি এক প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়, কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে পরিচালিত ফাজিল পাস ও স্নাতক সম্মান এবং কামিল (স্নাতকোত্তর) মাদ্রাসার ভর্তি, পরীক্ষা গ্রহণ-সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম এখন থেকে এই বিশ্ববিদ্যালয় সকল কার্যক্রম পরিচালনা করবে। একই সাথে অনার্স ও মাস্টার্সেও কার্যক্রম চলবে। এমনকি ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের ফাজিল, কামিলের ভর্তি ও পরীক্ষা আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে হবে।
বিশ্যবিদ্যালয়ে মাদ্রাসা শিক্ষায় ধর্মীয় শিক্ষার পাশাপাশি বিজ্ঞান ও প্রযুুক্তি শিক্ষা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। বর্তমানে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. আহসান উল্লাহ।

এহসান বিন মুজাহির: সাংবাদিক, কলামিস্ট শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার

About Islam Tajul

mm

এটাও পড়তে পারেন

কে সেই আনাস মাদানি? কি তার পরিচয়?

কমাশিসা ডেস্ক: ১৬ সেপ্টেম্বের ২০২০ইং ঘটনার সুত্রপাত। বাংলাদেশের প্রাচিনতম ও বৃহৎ কওমি মাদ্রাসা দারুল উলুম ...