মঙ্গলবার, ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ রাত ১:৫৬
Home / প্রতিদিন / রাজনীতির তেলেসমাতি : নানা ভেল্কিবাজি এবং রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম

রাজনীতির তেলেসমাতি : নানা ভেল্কিবাজি এবং রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম

imagesলাবীব আব্দুল্লাহ ::

রিজার্ভ ফান্ড থেকে ডলার লুট৷ লুটেরা রাগব বোয়াল৷ কুমিল্লায় সোহাগী তনুকে ধর্ষণ ও নর্মম কায়দায় হত্যা৷ ইউপি নির্বাচনে ভোটের তেলেসমাতি৷
সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলামকে বাতিল করতে রিটের শুনানী৷ রিট খারেজ করার দাবিতে ইসলামপন্থীদের আন্দোলনের ডাক৷ ইসলামপ্রেমীরা বেকারার এই ইস্যুতে৷ শংকিত৷
নানা ইস্যুতে দেশ চলছে৷ বাংলাদেশের আগামী নিয়ে অনেকে স্বপ্ন দেখাও বাদ দিচ্ছেন৷ রাজনীতে অঙ্গন স্থবির৷ বিএনপির কাউন্সিল হয়ে গেলো গত সপ্তাহে৷ মহাসচিব এখনও ভারপ্রাপ্ত৷ চেয়ারপার্সন আগের জনই৷ কর্মী সমর্থকরা হতাশায় দলের কার্যক্রম নিয়ে৷ জামায়াতে ইসলামীর নেতৃবৃন্দ নীরব৷ ফাঁসি হলে একদিনের হরতাল কর্মসূচি শুধু৷ দল বিপর্যস্ত৷ বামরা সুবিধাজনক৷ নৌকায় আরোহন করে অনের দূর এগিয়েছে৷ তবে সাঁতার না জানা ডুবন্ত ব্যাক্তির দশাও হতে পারে আগামী দিনে৷ নিমজ্জিত৷

দুই
১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ একুশ বছর পর ক্ষমতার স্বাদ লাভ করে৷ একুশ বছর কমপক্ষে থাকার প্লান৷ কখনও ২০২১ সাল৷ ভিশন কখনও ২৯৪১ সাল৷ তবে বর্তমান প্রবীণ নেতারা কি ২০৪১ সাল পর্যন্ত জীবীত থাকবেন কি না সেটাই প্রশ্ন৷ বাংলাদেশের গড় আয়ু হিসেবে এতো বছর বাঙ্গালী জীবীত থাকে না৷ তবে কার মৃত্যু কবে তা কেউ বলতে পারে না৷ আল্লাহ মালুম৷
যারা রাষ্ট্রধর্ম বাতিলের রিট করে ছিলো তাদের অনেকেই ওপারে৷ অনেকের এক পা কবরে৷
রিটকারীদের নামের শেষে ইসলাম ও দীনও আছে৷ একজন সিরাজুল ইসলাম৷ নিজের নামের অংশ থেকে ইসলাম বাদ না দিলেও রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দিতে মরিয়া৷ এদের আতলেমীতে জাতি বিভক্ত৷

তিন
রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম সংবিধানে বহাল রাখার দাবিতে সোচ্চার ইসলামী দলগুলো৷ তবে যার যার ব্যানারে৷ জুমাবার যার যার ব্যানারে মিছিল করবে৷ বিক্ষোভ করবে৷ উত্তাল হবে রাজপথ৷ এই দাবি রাজনৈতিক নয়; ঈমানী দাবি৷
রিট খারিজ না করলে আন্দোলন হবে দীর্ঘ মেয়াদী৷ জানবাজি রেখে আন্দোলন হবে৷ জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম প্রেসক্লাবে গোলটেবিল বৈঠক করেছে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বিষয়ে৷ গঠনমূলক একটি উদ্যোগ৷ বুদ্ধিবৃত্তিক লড়াই৷ সচেতন করার প্রয়াস৷
খেলাফত মজলিসের ডক্টর আহমদ আব্দুল কাদেরও জমিয়তের গোলটেবিলে হাজির হয়েছেন৷ ইতিবাচক মানসিকতা৷ ইসলামী ঐক্যজোট মাঠে৷ ইসলামী আন্দোলনও মাঠে মিছিল সমাবেশ করেছে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বহাল রাখার দাবিতে৷ বি-বাড়ীয়ার ঈমানদীপ্ত জনতা হেফাজতে ইসলামের ব্যানারে মিছিল করেছেন৷
গত জুমাবার৷ বাদ জুমা বিক্ষোভের ডাক দিয়েছিল হেফাজতে ইসলাম৷ সারা দেশে বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে। আদলত বিষয়ে সতর্ক কথা বলতে হবে অন্যথা মামলায় জড়িয়ে দেবে৷
সরকার জনতার স্পনন্দন দেখছে৷ মাঠে সরব না হলে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে সরকার কসুর করবে না৷ ক্রিকেট খেলায় বাংলাদেশ হেরেছে ভারতের কাছে৷ নাম টাইগার কিন্তু শেষ বলে ছক্কার চিন্তা করে টাইগার টার্গেট মিস করেছে৷ ছক্কার চক্করে না পড়লেও চলতো৷
ভারতের কাছে শুধু খেলায় নয়; কূটনীতিতেও হারছে বাংলাদেশ৷ সাংস্কৃতিক আগ্রাসন যুদ্ধেও পরাজিত বাংলাদেশ৷

চার
ইসলামের ইস্যুতে সব ইসলামপন্থী একজোট হবে এই প্রত্যাশা৷ এটি জনতার দাবি৷ জনতার প্রত্যাশা৷ পরস্পরে অবিশ্বাস, সংশয়-সন্দেহ বাদ দিয়ে সংকটময় মুহূর্তে এক না হলে নিষিদ্ধ হবে সব ইসলামী দল৷ ইসলাম বাতিল করতে সফল হলে ইসলামের নামে রাজনীতিও নিষিদ্ধ করবে এক সময়৷ হিজাব নিষিদ্ধ হবে৷ নিষিদ্ধ হবে আরও অনেক কিছু৷ আলবেনিয়া ও তুরস্কের ইতিহাস পড়লে অনেক তথ্য জানা যাবে৷ কামাল আতাতুর্ক ও আনোয়ার হুজ্জার যে ক্ষতি করেছে তা জেনে পদক্ষেপ নিতে পারবে এ দেশের জনতা৷
জনতাকে মনে করতে হবে ইসলামের ইস্যু শুধু ইসলামী দলের নয়৷ সব মুসলিমের ঈমানী বিষয়৷
সব মুসলিম সচেতন নয় এটিই একটি তেলেসমাতি৷
নানা তেলেসমাতি ও ভেল্কিবাজির মাঝে ইসলামকে যেন সংবিধান থেকে বাদ না দিতে পারে ব্যাপারে সজাগ থাকতে হবে সবাইকে৷ অন্যথা তেলেসমাতি হবে বহুমাত্রিক৷ বাংলাদেশ বিচ্ছিন্ন হবে মুসলিম উম্মাহ থেকে৷ দ্বিতীয় বৃহত্তর মুসলিম দেশর সংবিধান থেকে ইসলাম বাদ দিতে পারলে বর্ণচোরদের সাহস বেড়ে যাবে৷ বিপন্ন হবে মুসলিম৷

পাঁচ
তবে জনতা যদি শরীয়াহভিত্তিক দাবি করে তাও তাজ্জবের কিছু থাকবে না৷ তনুদের রক্ষার জন্য শরীয়ার আইন থেেক পৃথিবীতে ভালো কোনো আইন নেই৷ ইসলামী অর্থনীতি বাস্তবায়ণ হলে ডলার চুরি হবে না৷ কিন্তু আধুনিক সমাজ ইসলামী শরীয়াহকে ভয় করে৷ কেন ভয়? ইসলামপ্রেমীদের এই ভয় জয় করতে হবে৷ শুধু ইবাদতের কয়েকটি মাসআলা নিয়ে বহস নয় বুদ্ধিজীবীদের সাথেই বুদ্ধিবৃত্তিক বাহাস করতে হবে টকশোতে৷ সংলাপে৷ মিথিলারা একাত্তর টিভিতে যত মিথ্যাচার করুক মাওলানা সাখাওয়াতরা কথা বলছেন সাহসের সাথে৷ সাখাওয়াতদের যতই তাচ্ছিল্য করা হোক তাঁরা এগিয়ে যাবে আগামী বাংলাদেশে৷ বামদের তেলেসমাতি সব সময় চলবে না প্রিয় বাংলাদেশে৷ জনবিচ্ছিন্ন হবে তারা৷
ইসলামপন্থীরাও দেশের স্বাধীনতা দিবসে সরব থাকবে এই প্রত্যাশা৷ স্বাধীনতাকে নিয়ামত মনে করতে হবে৷ জুমাবারের মিছিল শান্তিপূর্ণ হোক৷ সহিংস আন্দোলনের সময় নয়৷
নানা ভেল্কিবাজি চলছে৷ জনতাকে এই ভেল্কিবাজির রহস্য বোঝতে হবে৷
ইসলাম ছিলো। ইসলাম আছে। ইসলাম হোক আমাদের ছায়া৷ শরীয়াই সর্বোত্তম সংবিধান পৃথিবীতে৷

About Islam Tajul

mm

এটাও পড়তে পারেন

কওমি মাদরাসা কল্যাণ ট্রাস্ট, বাংলাদেশ

খতিব তাজুল ইসলাম ট্রাস্টের প্রয়োজনীয়তাঃ কওমি অংগন একটি স্বীকৃত ও তৃণমূল প্লাটফর্ম। দেশ ও জাতির ...