মঙ্গলবার, ২৮শে জুন, ২০২২ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ দুপুর ২:৩৯
Home / প্রতিদিন / হিন্দি চ্যানেলগুলোর প্রভাব, মোবাইল-ফেসবুকের নোংরা ব্যবহার সর্বোপরি সামাজিক ও ধর্মীয় মূল্যবো্ধের অবক্ষয়ের কারণেই নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার হচ্ছে শিশুরা

হিন্দি চ্যানেলগুলোর প্রভাব, মোবাইল-ফেসবুকের নোংরা ব্যবহার সর্বোপরি সামাজিক ও ধর্মীয় মূল্যবো্ধের অবক্ষয়ের কারণেই নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার হচ্ছে শিশুরা

indexাা্ সাখাওয়াত হোসেন বাবুল ::

বনশ্রীর ভাই-বোন হত্যাকাণ্ডে ছেলে মেয়ে দুটির পিতা পাতাকে জিজ্ঞাসাবাদের ব্যাপারে পুলিশ এবং র‍্যাবকে অতিরিক্ত সহনশীল বলে মনে হচ্ছে । কারণ কি ?
পরিষ্কার ভাবে বোঝা যাচ্ছে শিশু দুটির মা শুরু থেকে মিথ্যা বলে আসছে । নির্মম হত্যাকাণ্ডের পর তাদের লাশ মর্গে ফেলে দু’জনই চলে গেছে গ্রামের বাড়ি । যা কোন ভাবেই গ্রহণযোগ্য নয় । নোংরা কোন ঘটনা লুকিয়ে রয়েছে এ হত্যা কাণ্ডের পেছনে । হত্যাকাণ্ডের পর শিশু দুটির মা প্রথমে বাবার বন্ধুকে ফোনে ডেকে আনে বলে সংবাদে প্রকাশ পেয়েছে । বাবাকে কেন ফোন দেওয়া হয়নি ? বাবার আগে বাবার বন্ধু কি ভাবে বাসায় পৌঁছল ? নানান প্রশ্ন উঠে আসবে ।
বাবা-মার পরকীয়ার ফলে সৃষ্ট পারিবারিক অশান্তি, নির্যাতনের বলি হযে শিশুরা নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার হচ্ছে । প্রতি বছর একের পর এক হত্যাকাণ্ড ঘটে চলেছে । সামাজিক অবক্ষয় হিন্দি চ্যানেলগুলোর প্রভাব, মোবাইল,ফেসবুকের নোংরা ব্যবহারের শিকার হচ্ছে কোমল মতি শিশুরা । দিনকে দিন মানুষ বিবেক শূন্য হয়ে পরছে । ক্ষণিকের মোহ,আবেগের জন্য নিজ হাতে হত্যা করছে নিজের সন্তানকে । শিশুরা অসহায় হওয়ায় তাদের উপর নিযাতন করা সহজ হচ্ছে । ফেসবুক,মোবাইল এসব আমাদের সভ্য নয় অসভ্য করে তুলছে ।

সংবাদ পত্রের পাতা উল্টালে এমন সংবাদ প্রতি বছর উঠে আসছে । গত ১২ আগস্ট রাজধানীর ডেমরায় মায়ের পরকীয়া ছেলে জেনে ফেলায় মায়ের নিদেশে ছেলেকে হত্যা করা হয় । মিরপুরে মা হত্যা করান তার কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে । পুরানো ঢাকায় মা তার ছেলেকে হত্যা করে বস্তায় ভরে খেলার মাঠে ফেলে রাখে । জুরাইনে পিতার পরকীয়া আর নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে মা,ছেলে, মেয়ে এক সাথে আত্মহত্যা করে । তারা মৃত্যুর পূর্বে ঘরের দেয়াল জুড়ে লিখে যে নির্মম সত্য প্রকাশ করে যায় সমাজের আর রাষ্ট্রের উদ্দেশ্যে । কিন্তু তাতে সমাজ বা রাষ্ট্রের প্রভাবশালীদের কিচ্ছু যায় আসেনি । কেউ কিছু করেনি । সেই কুলাঙ্গারটি থানা পুলিশ কোট সব ম্যানেজ করে নতুন করে বিয়ে করে সংসার করছে । এ লজ্জা সমাজের । এ লজ্জা আমাদের সকলের । এরকম অসংখ্য ঘটনার কথা আমাদের সকলের জানা তবুও আমরা মুখে কুলুপ এঁটে থাকি ।

ShakhawatBabon-1456985012-ded1138_xlargeপৃথিবীতে শিশুদের জন্য সব চাইতে নিরাপদ স্থান হচ্ছে তার তার পরিবার, পিতা মাতার ছায়া । অথচ নোংরা লালসা শিশুদের সেই আশ্রয় স্থলটুকু কেড়ে নিচ্ছে । রাষ্ট্রে চাইলে এই অবক্ষয় থেকে সমাজকে রক্ষা করতে বিশেষ ভূমিকা পালন করতে পারে । প্রতিটি শিশু হ্যান্ডের কঠিন বিচারের ব্যবস্থা করে । স্বামী, স্ত্রীর সম্পর্কের মধ্যে বনিবনা না হলে সবচাইতে ভাল ব্যবস্থা হচ্ছে তাদের আলাদা হয়ে যাওয়া । কিন্তু না করে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করে গেলে । শিশুরাই শারীরিক আর মানসিক নির্যাতন থেকে শুরু করে নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়ে যায় । সেই শিশুদের মতো দু:খী হতভাগ্য আর কেউ নেই যারা পিতা মাতার আদর, ভালবাসা থেকে বঞ্চিত ।
এক একটা ঘটনা ঘটে আর আমরা বেলুনের মতো ফুসে উঠি আবার চুপসে যাই । শিশু হত্যা বন্ধের জন্য আমাদের সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে ।
ইউনিসেফ, সেইভ দ্যা চিল্ডেন, প্লান্ট ইন্টারন্যাশনাল এইসব প্রতিষ্ঠানগুলো শিশুদের উন্নয়নের নামে কোটি কোটি টাকা ব্যয় করছে । ইউনিসেফ, সেইভ দ্যা চিল্ডেন, প্লান্ট ইন্টারন্যাশনাল সেসব গাড়ী ব্যবহার করে তা দিয়ে একটি গ্রামের সকল শিশুর এক বছরের খাবার যোগান দেওয়া যায় । তাই এদের কাছ থেকে কিছুই পাওয়া যাবে না । যা করার তা আপনাকে আমাকেই করতে হবে । ঘরে বাহিরে যেখানেই কোন শিশু নির্যাতনের খবর পাওয়া যাবে সংঙ্গে সংঙ্গে তা পুলিশকে জানাতে হবে । আশে পাশের দশ জনকে নিয়ে শিশুটির পাশে দাড়াতে হবে । আসুন সবাই হাত বাড়িয়ে দেই ।

About Islam Tajul

mm

এটাও পড়তে পারেন

কওমি মাদরাসা কল্যাণ ট্রাস্ট, বাংলাদেশ

খতিব তাজুল ইসলাম ট্রাস্টের প্রয়োজনীয়তাঃ কওমি অংগন একটি স্বীকৃত ও তৃণমূল প্লাটফর্ম। দেশ ও জাতির ...