সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ ভোর ৫:৩২
Home / দেশ-বিদেশ / সালাউদ্দিন কাদের ও মুজাহিদের দাফন সম্পন্ন

সালাউদ্দিন কাদের ও মুজাহিদের দাফন সম্পন্ন

মুক্তিযুদ্ধকালে মানবতাবিরোধী অসাকা-চৌধুরী-আলী-আহসান-মুজাহিদপরাধে ফাঁসি কার্যকর হওয়া বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরী ও জামায়াত নেতা আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের দাফন সম্পন্ন হয়েছে।
চট্টগ্রামে রাউজানের গহিরায় পৈতৃক বাড়ির পারিবারিক কবরস্থানে আজ রোববার সকাল ১০টার দিকে তাঁকে দাফন করা হয়। এ সময় পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে বাড়ির মসজিদ প্রাঙ্গণে তাঁর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাযা পড়ান হেফাজতে ইসলামের জ্যেষ্ঠ নায়েবে আমির মুহিবুল্লাহ বাবুনগরী। এতে সাকা চৌধুরীর পরিবারের সদস্যরা ছাড়াও এলাকার লোকজন অংশ নেন।কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে আজ সকাল নয়টার দিকে সাকা চৌধুরীর মরদেহ তাঁর পৈতৃক বাড়িতে পৌঁছায়।

চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, সাকা চৌধুরীর জানাজা ও দাফনকে কেন্দ্র করে রাউজানে বাড়তি নিরাপত্তা-ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখতে অতিরিক্ত পুলিশের পাশাপাশি বিজিবি মোতায়েন করা হয়।

গতকাল শনিবার দিবাগত রাত ১২টা ৫৫ মিনিটে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে সাকা চৌধুরীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। একই সময়ে একাত্তরে মানবতাবিরোধী আরেক অপরাধী জামায়াত নেতা আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদেরও মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়।

সাকা চৌধুরী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ছিলেন। আর মুজাহিদ ছিলেন জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল। সাকা চৌধুরীর বাড়ি চট্টগ্রামের রাউজানে। মুজাহিদের বাড়ি ফরিদপুরে।

এদিকে আজ সকালে ফরিদপুর শহরের পশ্চিম খাবাসপুরে আদর্শ একাডেমি পরিচালিত আইডিয়াল মাদ্রাসার প্রধান ফটকের ডান পাশে জামায়াত নেতা আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের দাফন সম্পন্ন হয়। এর আগে ৬টা ৫৫ মিনিটে ওই মাদ্রাসা মাঠে তাঁর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

ফরিদপুর জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আবদুর রশিদ প্রথম আলোকে বলেন, সাতটা ১০ মিনিটে মুজাহিদের দাফন সম্পন্ন হয়। তবে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তাঁর কবরস্থান পর্যন্ত কোনো গণমাধ্যমকর্মী ও সাধারণ মানুষদের যেতে দেয়নি। কবরস্থান থেকে প্রায় পাঁচশ গজ দূরে তাঁদের আটকে দেওয়া হয়।

এর আগে মুজাহিদের লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্স ভোর ৬টা ৩৫ মিনিটে ফরিদপুর পৌঁছায়। এ সময় রাজবাড়ী-ফরিদপুরের সীমান্ত এলাকা সাইনবোর্ড নামক স্থানে দুজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রুবায়েত হায়াত শিপলু ও মন্দীপ ঘড়াই ফরিদপুর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মুজাহিদের লাশ গ্রহণ করেন।
গতকাল শনিবার দিবাগত রাত ১২টা ৫৫ মিনিটে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে মুজাহিদ ও সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ফাঁসি কার্যকর করা হয়।

এর আগে একই অপরাধে ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছিল জামায়াতের দুই সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল কাদের মোল্লা ও মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের।

About Islam Tajul

mm

এটাও পড়তে পারেন

কওমি মাদরাসা কল্যাণ ট্রাস্ট, বাংলাদেশ

খতিব তাজুল ইসলাম ট্রাস্টের প্রয়োজনীয়তাঃ কওমি অংগন একটি স্বীকৃত ও তৃণমূল প্লাটফর্ম। দেশ ও জাতির ...