সোমবার, ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ সকাল ১১:২৬
Home / মুসলিম বিশ্ব / যুদ্ধবিদ্যায় পারদর্শী কুর্দী জাতিগোষ্ঠীর পরিচয়

যুদ্ধবিদ্যায় পারদর্শী কুর্দী জাতিগোষ্ঠীর পরিচয়

আবুল হুসাইন আলেগাজী ::

Kurdish-Komashisha

কয়েকদিন আগে এক طالب علم আমাকে কুর্দীদের নিয়ে কিছু লেখার জন্য অনুরোধ করেছিল। তার অনুরোধ উপযুক্ত মনে হওয়ায় আল্লাহর ইচ্ছায় তা রক্ষা করতে চেষ্টা করলাম। এখানে ফেসবুকের সবাইকে একটি সুসংবাদ দিয়ে রাখছি। তাহলো, আপনারা যে কোন বিষয়ক জ্ঞান-বিজ্ঞানের তৃঞ্চা মেটানোর জন্য আমার সহায়তা নিতে পারবেন। আপনারা যে বিষয়ে লেখা চাইবেন, আমি আমার যথাসাধ্য ত্যাগ স্বীকার করে সে বিষয়ে লেখার চেষ্টা করবো। আপনারা আমার সুস্থতার জন্য দোয়া করলেই চলবে। এ ছাড়া আর কোন প্রতিদান চাই না। এবার আসি আলোচ্য বিষয়ে।

কুর্দী জাতি মধ্যপ্রাচ্যের الشرق الأوسط একটি নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠী। কুর্দিস্তান বলে পরিচিত অঞ্চলে এরা বসবাস করে। কুর্দিস্তান অঞ্চল ইরান, ইরাক, সিরিয়া ও তুরস্কজুড়ে বিস্তৃত। কুর্দিরা ইরানি জাতির অংশ। তাদের ভাষা কুর্দি ভাষা। এটি ইরানি ভাষার শাখা উত্তর পশ্চিম ইরানি ভাষার অংশ।

কুর্দিদের সংখ্যা প্রায় ৩ কোটি। অধিকাংশ কুর্দিদের আবাস পশ্চিম এশিয়ায়। কুর্দিস্তান অঞ্চলের বাইরে পশ্চিম তুরস্কে কুর্দিদের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক উপস্থিতি রয়েছে। ইরাকের স্বায়ত্ত্বশাসিত কুর্দিস্তানে কুর্দিরা সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগোষ্ঠী। প্রতিবেশী তুরস্ক, সিরিয়া ও ইরানে কুর্দিরা সংখ্যালঘু। এসব অঞ্চলে কুর্দি জাতীয়তাবাদীরা স্বায়ত্ত্বশাসনের জন্য আন্দোলন করছে।

ধর্মগত দিক থেকে কুর্দিরা মূলত সুন্নী। তবে তাদের মাঝে কিছু ইয়াজিদী ও শিয়াও রয়েছে।

কুর্দিরা যুদ্ধবিদ্যায় খুবই পারদর্শী। ইসলামের বিখ্যাত বীর সুলতান নূরুদ্দীন জঙ্গী, আসাদুদ্দীন শেরকূহ ও তাঁর ভাতিজা মহান বীর ছালাহুদ্দীন আয়ুবীসহ অনেক ইতিহাসখ্যাত মুসলিম ব্যক্তিত্বের জন্ম হয়েছে কুর্দিদের মাঝে। গত বছর তুরস্ক সীমান্তবর্তী সিরিয়ার কোবানীতে আইএস খারেজীরা عصابة البغدادى কুর্দী যোদ্ধাদের হাতে চরম লাঞ্চনাকর পরাজয় বরণ করেছে।

বর্তমানে কুর্দি জাতিগোষ্ঠীর রাজনৈতিক নেতৃত্ব দিচ্ছে বামঘেঁষা জাতিয়তাবাদীরা। ধর্মীয় মযহাবের দিক থেকে তারা উপমহাদেশের মুসলমানদের মত হানাফী ও তছওউফপন্থী।

কুর্দিস্তান অঞ্চলের পরিচয়ঃ

কুর্দিস্তান (কুর্দি ভাষায়: Kurdewarî; ইংরেজি ভাষায়: Kurdistan; অর্থ “কুর্দিদের দেশ”) মধ্যপ্রাচ্যে অবস্থিত ভৌগোলিক ও সাংস্কৃতিকভাবে একতাবদ্ধ একটি অঞ্চল। এখানকার সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগণ কুর্দি জাতির লোক, যারা কুর্দি ভাষায় কথা বলে ও কুর্দি সংস্কৃতি লালন করে।

সেলজুক তুর্কি সুলতান সাঞ্জার সম্ভবত সর্বপ্রথম ১২শ শতকে কুর্দিস্তান নামটি সরকারীভাবে ব্যবহার করেন। তিনি সেসময় কুর্দিদের আবাসভূমি বিজয় করেছিলেন এবং কুর্দিস্তান নামের একটি প্রদেশ গঠন করেছিলেন। এর রাজধানী ছিল বাহার শহর, যা বর্তমান ইরানি হামাদান শহরের কাছেই অবস্থিত।

আধুনিককালে কুর্দিস্তান বলতে তুরস্কের পূর্বের কিছু অংশ (তুর্কি কুর্দিস্তান), উত্তর ইরাক (ইরাকি কুর্দিস্তান), দক্ষিণ-পশ্চিম ইরান (ইরানি কুর্দিস্তান) এবং উত্তর সিরিয়ার (সিরীয় কুর্দিস্তান) কুর্দি-অধ্যুষিত অঞ্চলগুলিকে বোঝায়। ভৌগলিকভাবে কুর্দিস্তান অঞ্চলটি জগ্রোস পর্বতমালার উত্তর-পশ্চিম অংশ এবং তোরোস পর্বতমালার পূর্বাংশ নিয়ে গঠিত। এছাড়া আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার সামান্য কিছু এলাকাকেও কুর্দিস্তানের অন্তর্গত গণ্য করা হয়।

ইরাকি কুর্দিস্তান ১৯৭০ সালে ইরাকি সরকারের সাথে এক চুক্তির মাধ্যমে স্বায়ত্তশাসন লাভ করে। ২০০৫ সালে ইরাকের নতুন সংবিধানেও ইরাকি কুর্দিস্তানের এই স্বায়ত্তশাসন পুনরায় স্বীকৃতি পায়।

ইরাকের প্রতিবেশী ইরানের কুর্দি-অধ্যুষিত এলাকাটিকে কোর্দেস্তন নামের একটি প্রদেশের অন্তর্গত করা হয়েছে। কিন্তু ইরানের এই প্রদেশটি কোন স্বায়ত্তশাসিত প্রদেশ নয়।

বিংশ শতাব্দীতে কুর্দি জাতীয়তাবাদের উন্মেষ ঘটে। কিছু কুর্দি জাতীয়তাবাদী সংগঠন কুর্দিস্তান নামের একটি স্বাধীন জাতিরাষ্ট্র গঠনের প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে, যাতে কুর্দি-অধ্যুষিত সমস্ত এলাকা বা এর অংশবিশেষ অন্তর্ভুক্ত থাকবে। অন্যরা বর্তমান রাষ্ট্রীয় সীমানাগুলির মধ্যেই কুর্দি অঞ্চলগুলির স্বায়ত্বশাসনের পরিমাণ বাড়ানোর পক্ষপাতী।

তথ্যসূত্রঃ ইন্টারনেট ভিত্তিক বিভিন্ন ওয়েবসাইট

৩০. ০৯. ২০১৫

About Abul Kalam Azad

এটাও পড়তে পারেন

ইদলিবের মাধ্যমেই সিরিয়ার বিজয় সুচিত হবে ইনশাআল্লাহ!

ইদলিবে শিয়া মুনাফেক রুশ কাফেরদের এক কথায় তুলাধুনা চলবে……. প্রস্তুত তুরস্কের নৌবাহিনী সেনাবাহিনী বিমানবাহিনী। ইতিমধ্যেই ...