বুধবার, ২৫শে মে, ২০২২ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ রাত ১:৪৫
Home / কওমি অঙ্গন / বেফাকের উটপাখির অভিনয় এবং ‘চোর ডাকাতের শিক্ষা’ সমাচার

বেফাকের উটপাখির অভিনয় এবং ‘চোর ডাকাতের শিক্ষা’ সমাচার

বেফাক কমাশিসাকমাশিসা শিক্ষাডেস্ক: সিলেটের জেলা কমিটি গঠন নিয়ে মুলতঃ দেশব্যাপী বেফাক নিয়ে তুমুল আলোচনার ঝড় বয়। পক্ষে বিপক্ষে চলছে বিতর্ক চলছে নেটের পাতায়। সিলেটের জেলাপরিষদের মিটিংয়ে বেফাক মহাসচিবের বিতর্কিত মন্তব্যগুলো প্রকৃতপক্ষে সমস্যার শুরু। তিনি স্বীকৃতি চাই না বলে ৫০ লক্ষ কওমি প্রজন্মকে কেবল অপমানিত করেন নি বরং গোটা দেশের জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাকে চোর ডাকাতের শিক্ষা বলে উপহাস করেছেন। সরকার স্বীকৃত শিক্ষা থেকে শুধু চোর ডাকাতের প্রডাকশন বক্তব্য আমরা মনে করি পুরো জাতিকে অপমানিত করার শামিল। আমরা জিজ্ঞেস করতে চাই কওমি মাদরাসার ফান্ড আসে কোথা থেকে? আজ থেকে কি আমরা ঘোষণা দিবো যে, কোন স্কুল পড়ুয়া লোকের টাকা পয়সা কওমি মাদাসায় গ্রহন করা হবে না? কারা কওমি মাদরাসার পরিচালনা পরিষদের সদস্য? যারা আছে তাদের বলবো কি যে, কোন স্কুল পড়ুয়া লোক কওমি মাদরাসার কমিটিতে থাকতে পারবেন না? জেলাপরিষদ মিলনায়তন সরকারি একটি প্রতিষ্ঠান! তাহলে চোর ডাকাতের প্রতিষ্ঠানে কেন তিনি মাহফিলের ্‌আয়োজন করলেন? দেশের সেনা পুলিশ ব্যাংকার বিচারক ডাক্তার কারিগর শিক্ষকসহ সকল বিভাগের মানুষ কি চোর ডাকাত? এদেশের পুরোটাই কি চোর ডাকাতে ভরা? কওমি পড়ুয়া মাত্র ৩%ভাগ মানুষ । বাকি ৯৭% ভাগ স্কুল কলেজ পড়ুয়া কি চুরি ডাকাতি করে? বেফাক মহাসচিব মহুদয়ের এমন বেফাস মন্তব্য সভ্য মহলে ক্ষোভের সঞ্চার ঘটিয়েছে।

অনেকে স্বীকৃতি চাই না বলার  কারণে বেফাক মহাসচিবের পদত্যাগ দাবী করেছেন। আমরা বিশ্বস্থ সুত্রে জানতে পেরেছি যে দারুল উলুম হাটাজারিতে দেশের সেরা উলামাদের পরামর্শ সভা ডাকা হয়েছিলো ২২শে আগস্ট। সেখানে একমাত্র বেফাক মহাসচিব ছাড়া সকল উলামায়ে কেরাম স্বীকৃতির পক্ষে মত দিয়েছেন। একজন ব্যক্তির জন্য গোটা জাতি সাফার করবে কেন? এবং তা কি করে সম্ভব?

বেফাক জেলা কমিটি নিয়ে অনেকে প্রশ্ন ছুড়েছেন যে, ইহা কি কোন রাজনৈতিক সংগঠন ? কোন শিক্ষাবোর্ডের জেলা কমিটি এভাবে গঠিত হয় কি করে? বেফাক কে যখন প্রশ্ন করা হয় যে, আপনারা এভাবে সামাজিক সংগঠনের ন্যায় জেলায় জেলায় কমিটি গঠন করেন কেমনে? তখন উত্তর আসে যে, না বেফাক একটি অরাজনৈতিক সামাজিক সংগঠন। তার একটি শাখা হলো কওমি শিক্ষাবোর্ড। আচ্ছা যখন তাদের বলা হয় ঠিক আছে তাহলে সামাজিক সংগঠন হলে আপনাদের অন্য কোন আর্থসামাজিক কর্মসূচি নাই কেন? তখন উত্তর আসে আরে আমরা তো কেবল শিক্ষা নিয়ে কাজ করি। আবার যখন প্রশ্ন করা হয় যে, শিক্ষা সিলেবাস সংস্কার এবং আধুনিক মানসম্মত পাঠ্যসূচি প্রণয়নে কাজ করেন না কেন ? তখন তাদের উত্তর হলো আমরাতো কেবল পরীক্ষা গ্রহণ করি। সিলেবাস নিয়ে কাজ করি না। এই হলো উট পাখি সমাচার। উট পাখিকে যখন বলা হয় যে তুমি যখন পাখি তাহলে আকাশে  ওড়ো? সে বলে যে না আমিতো উট। আবার যখন বোঝা বয়ে নিয়ে যাবার কথা বলা হয় তখন বলে, আরে না আমিতো পাখি!

একটি স্বাধীন দেশে বসবাস করে দেশের যাবতীয় কার্যক্রম থেকে কোন একটি প্রজন্মকে দূরে রাখার সুবিধা কি? শুধুমাত্র কিছু লোকের স্বার্থহানী ঘটবে এই  আশংকায় তারা সংস্কার এবং স্বীকৃতির বিরোধিতা করছেন। আমরা পরিষ্কার ভাষায় সরকারকে জানিয়ে দিতে চাই যে, কে আসলো কে আসলো না সেদিকে ভ্রুক্ষেপ করার কোন প্রয়োজন নেই।আমরা সংস্কার স্বীকৃতি উভয়টি চাই। শিক্ষাকে নিয়ে আর রাজনীতির করতে দেখতে চাই না। যারা আসতে চায় না তাদেরকে তাদের মতো করে থাকতে দিন। যারা স্বীকৃতি চায় কেন তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হবে? সরকারের সাথে সদিচ্ছা নিয়ে আলোচনা করা আমাদের খুব প্রয়োজন। আমরা যদি সরকারের কাছে না যাই না বসি না কথা শোনি তাতে সরকারের কি আসে যায়? তাদেরকে ক্ষমতা থেকে নামানোর শক্তি কারো আছে? সরকারের বিরুদ্ধাচরন করে কোন পজিটিভ ফলাফল নিয়ে আসা সম্ভব? তাই বোকার মতো কাজ না করে হেকমত অবলম্ববন করতে হবে। বিএনপি আর জামাতের বিটিম হয়ে যারা কাজ করছে তারাই চায় না কওমির উন্নতি। জামাত বিপএনপিরা সরকারি মজা লুটেপুটে খেয়ে এখন চায় না কোন কওমি প্রজন্ম রাষ্ট্রীয় কাজে অংশগ্রহন করুক। বোকা কওমির কিছু লোক ভাবছে আবার  বিএনপি আসলে স্বীকৃতি নিবে। সামান্য রাজনৈতিক খোয়াব দেখিয়ে গোটা প্রজন্মকে তারা অন্ধকারের দিকে ঠেলে দিতে প্রস্তুত! আমরা কারো গোলাম হয়ে থাকতে চাই না। কারো রাজনৈতিক হাতিয়ার হতে চা্ই না। শাপলায় যারা গুটি চালিয়ে ছিলো এখন তারা আবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠার চেষ্টা করছে। কিন্তু সেইদিন এইদিন নয় তারা কি এখনো বুঝেনা? নাকি বোঝার সেই যোগ্যতাটুকুও হারিয়ে ফেলেছে?

যে যাই বলূক সংস্কার স্বীকৃতির বিষয়ে আমাদের কোন আপস নেই কমপ্রমাইজ নেই। কে খুশি কে দুঃখিত তাতে আমাদের যায় আসে না। আমরা আমাদের কওমি তরুণদের উজ্জ্বল ভবিষ্যত কামনা করে যাবো। আমরণ সংগ্রাম করে যাবো ইনশাআল্লাহ।

About Islam Tajul

mm

এটাও পড়তে পারেন

কওমি মাদরাসা কল্যাণ ট্রাস্ট, বাংলাদেশ

খতিব তাজুল ইসলাম ট্রাস্টের প্রয়োজনীয়তাঃ কওমি অংগন একটি স্বীকৃত ও তৃণমূল প্লাটফর্ম। দেশ ও জাতির ...