বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন, ২০২৪ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ বিকাল ৫:৪৫
Home / মানবাধিকার /  জান্নাতবাসীদের আফসোস

 জান্নাতবাসীদের আফসোস

 

afsosজান্নাতি যখন জান্নাতে যাবে, তখন বলবে— الحمد لله الذي أذهب عني الحزن — সকল প্রশংসা আল্লাহর, যিনি আমার থেকে দুঃখ দূরীভূত করে দিয়েছেন। আমাদের থেকে সব বেদনা দূর হয়ে গেছে আজ।

জন্নাতে অনেক আনন্দ হবে। মানুষ আল্লাহর দর্শন পাবে, নবীজিকে স. দেখবে। নেককারদের আসর হবে। আরও বেশি আনন্দ লাগবে এই ভেবে যে, আমাদের থেকে এইসব নেয়ামত কখনো ফিরিয়ে নেয়া হবে না আর।

এই আনন্দের সময়েও বান্দার একটা আক্ষেপ থেকে যাবে। হাদিসে এসেছে, হজরত শাইখুল হাদিস মাওলানা জাকারিয়া রহ.হাদিসটি ‘ফাজায়েলে জিকির’ গ্রন্থে উদ্ধৃত করেছেন, বর্ণনাকারী বলেন—

لا يتحسر أهل الجنة إلا على ساعة من ربهم لم يذكر الله تعالى

জান্নাতবাসীদের কোনো কিছুতেই আক্ষেপ হবে না, কেবল একটি বিষয় ছাড়া, যেই সময়টুকু দুনিয়াতে তারা আল্লাহর স্মরণবিহীন অর্থাৎ গাফেলতির মধ্যে কাটিয়েছে। জান্নাতবাসী সেই গাফেল সময়টুকুর জন্যে তখন আফসোস করবে।

বলবে— হায়, আমরা সে-সময় যদি আল্লাহর স্মরণ ছেড়ে উদাসীন না থাকতাম, তাহলে আজ আমাদের মর্যাদা আরও বেশি উন্নীত হতো।

একন বলুন, সেই আফসোস জান্নাতে গেলেও পিছু ছাড়বে না, সেটা কত বড় আফসোসের বিষয় হবে? তাই নিজের সময়টুকু আল্লাহর স্মরণে সমৃদ্ধ করে নিন।

সূত্র : আমল সে জিন্দেগি বনতি হ্যায়, পৃষ্ঠা ২০

লেখক : জুলফিকার আহমাদ নকশবন্দি

About Abul Kalam Azad

mm

এটাও পড়তে পারেন

বাংলাদেশের বৃহত্তম এতিমখানা করলো তুরস্ক

বাংলাদেশে ১৭০ অনাথ শিশুকে আশ্রয় দেয়ার জন্য একটি অত্যাধুনিক এতিমখানা খুলেছে তুরস্কের মানবিক সহায়তা সংস্থা ...