রবিবার, ২৬শে জুন, ২০২২ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ বিকাল ৫:৪৩
Home / অনুসন্ধান / ডিজিটাল ছবি : কুরআন-হাদিস কী বলে?

ডিজিটাল ছবি : কুরআন-হাদিস কী বলে?

কববমুফতী আসহাদুল হক নছিরী ::

যে ডিজিটাল ছবির কোনো আকার, পরিধি ও স্থিতি নাই তা সম্পূর্ণ জায়েজ, বৈধ। এ কথা সহজেই অনুমেয় যে, রাসূল [সা.] যে তাসবির-ছবি নিষেধ করেছেন তা নিশ্চয়ই ডিজিটাল ছবি ছিলো না; বরং তা ছিল মূর্তি বা মূর্তির আকৃতি স্বরূপ ছবি ৷
রাসূল [সা.] বলেন,  ﻻ ﺗﺪﺧﻞ ﺍﻟﻤﻼﺋﻜﺔ ﺑﻴﺘﺎ ﻓﻴﻪ ﻛﻠﺐ ﻭ ﻻ ﺗﺼﺎﻭﺭ ঐ ঘরে রহমতের ফেরেশতা প্রবেশ করে না, যে ঘরে কুকুর কিংবা তাসবির-ছবি থাকে ৷ এছাড়াও যে সকল হাদিসে ছবির ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা এসেছে বলা হয়ে থাকে সেগুলোতেও তাসবির বা ﺻﻮﺭﺓ শব্দই ব্যবহৃত হয়েছে ৷ যেমন- ﻫﻠﻚ ﺍﻟﻤﺼﻮﺭﻭﻥ বা ﻣﻦ ﺻﻮﺭ ইত্যাদি ৷

আসুন জেনে নেই তাসবির কী?
এ কথা মনে রাখতে হবে যে, তাসবির শব্দটি আরবি ব্যকরণ অনুযায়ী বাবে তাফয়ীলের মাসদার বা ক্রিয়া ৷ আর বাবে তাফয়ীলের বিশেষত্ব (ﺧﺎﺻﺔ) হল ﺟﻌﻞ এর অর্থ প্রদান করে। তাই ﺗﺼﻮﻳﺮ মানে ﺟﻌﻞ ﺍﻟﺼﻮﺭﺓ যার অর্থ দাঁড়ায় চিত্র বা ছবি নির্মাণ করা ৷ আভিধানিক অর্থে ﻣﺎ ﻳﺠﻌﻞ ﻣﻦ ﺍﻟﻄﻴﻦ ﻭﺍﻟﺨﺸﺒﻪ অর্থ্যাৎ যা কাদামাটি ও কাঠ দ্বারা নির্মাণ করা হয় এবং যেটাকে মানুষ পূজা করে তাকেই তাসবির বা ছবি বলা হয়। কোনোভাবেই যেন শিরকের চিন্তাধারার উত্থান না ঘটে তাই তাসবির নিষেধ করা হয়েছে ৷ সর্বজন গ্রহণযোগ্য অভিধান লিসানুল আরবসহ অন্যান্য অভিধানে তাসবির বা ﺻﻮﺭﺓ ‘র সংজ্ঞা দেয়া হয়েছে এভাবে-ﻣﺎ ﻟﻬﺎ ﺷﻜﻞ ﻭ ﺍﺑﻌﺎﺩ ﻭ ﺛﺒﻮﺕ  অর্থ্যাৎ ছবি হলো যার আকার, পরিধি ও স্থিতি আছে ৷

মোবাইল, ইন্টারনেট ও টেলিভিশনের ছবি তথা ডিজিটাল ছবির আকার, পরিধি ও স্থিতি নাই ৷ যন্ত্র চালু না করলে ছবির কোন অস্তিত্বই দেখা যায় না ৷ তাই এটি কোন ক্রমেই তাসবির নয় ৷ ডিজিটাল ছবিকে জোর করে তাসবিরের হুকুমে ঢুকাতে চাওয়া এক প্রকার গোঁড়ামি ৷
আরব উলামায়ে কেরামের মতে ডিজিটাল ছবি- যার কোনো আকার, পরিধি ও স্থিতি নাই তা সম্পূর্ণ জায়েজ ৷ সৌদি আরবের সবচেয়ে বড় শায়খ ড. সালেহ আল-উসাইমিন এর ফতোয়া- ﺍﻟﺼﻮﺭﺓ ﺍﻟﺮﻗﻤﻲ ﺟﺎﺋﺰ অর্থ্যাৎ ডিজিটাল ছবি জায়েজ ৷ তাঁর এই ফতোয়া প্রদানের পর ডিজিটাল ছবি জায়েজ হওয়ার ব্যাপারে আরবের সকল উলামায়ে কেরাম একমত পোষণ করেছেন ৷ তবে প্রিন্টেড ছবির আকার, পরিধি ও স্থিতি রয়েছে ৷ তাই এটি তাসবিরের অন্তর্ভূক্ত হওয়ায় নাজায়েজ ৷ তবে প্রিন্টেড ছবি জায়েজ জরুরতে দ্বীনিয়্যা শর্তে। ﺍﻟﻀﺮﺭﻭﺭﺓ ﺗﺒﻴﺢ ﺍﻟﻤﺤﻈﻮﺭﺍﺕ ﺃﻱ ﺍﻟﻤﺤﻈﻮﺭﺍﺕ ﺍﻟﺪﻳﻨﻴﻪ আলোচ্য এই মূলনীতির আলোকে দীনী প্রয়োজনেও প্রিন্টেড ছবিও জায়েজ বলে গণ্য হবে ৷

একটি ছবি এক হাজার শব্দের চেয়েও বেশি কার্যকরী৷ কোনো বক্তব্যের প্রমাণ ও প্রভাব সৃষ্টির জন্য দ্বীনী প্রয়োজনে পত্রিকায় ছবি ছাপতে হয়৷ এটিও জরুরতের অন্তর্ভূক্ত হবে৷ এটি হবে ﺍﻟﻀﺮﺭﻭﺭﺓ ﺍﻻﻋﻼﻣﻴﻪ বা মিডিয়ার প্রয়োজন৷ দ্বীন প্রচারে উলামায়ে কেরামের মিডিয়ায় আসা জরুরী৷
বিশেষত টেলিভিশনে৷ কারণ এটির মাধ্যমেই সবচে’ বেশি মানুষের কাছে পৌঁছা যায় এবং এটিই সবচে’ বেশি প্রভাব বিস্তার করতে সক্ষম৷ এখনও এ নিয়ে ইখতেলাফ করতে থাকা উলামায়ে কেরামের জন্য আত্নঘাতী ছাড়া আর কিছু নয়৷
এ মত পোষণ করেছেন আল্লামা মুফতি তকী উসমানী দা. বা., আল্লামা মুফতি খালিদ সাইফুল্লাহ রহমানী দা. বা. ভারত।

সংগ্রহে : জুলফিকার মাহমুদী

About Islam Tajul

mm

এটাও পড়তে পারেন

কওমি মাদরাসা কল্যাণ ট্রাস্ট, বাংলাদেশ

খতিব তাজুল ইসলাম ট্রাস্টের প্রয়োজনীয়তাঃ কওমি অংগন একটি স্বীকৃত ও তৃণমূল প্লাটফর্ম। দেশ ও জাতির ...