বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন, ২০২৪ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ বিকাল ৩:৩৬
Home / কওমি অঙ্গন / স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাত করে ৫ দাবী পেশ করলেন সম্মিলিত ৫ বোর্ডের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাত করে ৫ দাবী পেশ করলেন সম্মিলিত ৫ বোর্ডের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ

জুলফিকার মাহমুদী : সম্মিলিত কওমি শিক্ষাবোর্ড আল হাইআতুল উলআয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া’র অন্তর্ভুক্ত বেফাক ব্যতীত ৫ বোর্ডের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ গতকাল (মঙ্গলবার) রাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সাথে দেখা করেছেন।
 
মঙ্গলবার রাত সাড়ে দশটা থেকে ১২টা পর্যন্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় দেড়ঘণ্টাব্যাপী এই এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় বলে মুঠোফোনে কওমিকণ্ঠকে জানিয়েছেন আযাদ দ্বীনী এদারায়ে তা’লীম বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা আব্দুল বছীর।
 
ইত্তেহাদুল মাদারিসিল কওমিয়ার সভাপতি আল্লামা আবদুল হালিম বুখারীর নেতৃত্বে বৈঠকে অংশ নেন মুফতি মুহাম্মদ আলী, মুফতি রুহুল আমিন, মুফতি আরশাদ রাহমানী, মাওলানা আবদুল বছীর, মাওলানা ইয়াহইয়া মাহমুদ, মাওলানা এনামুল হক বহরগ্রামী, মাওলানা ইমদাদুল্লাহ কাসেমী, মাওলানা আবদুল হক হক্কানী প্রমুখ।
 
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা বিষয়ে মাওলানা আব্দুল বছীর বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাদের বলেছিলেন কওমি মাদরাসা সম্পর্কে আমি কিছুই জানি না, আপনারা যেভাবে চাইবেন সেভাবেই স্বীকৃতি দেয়া হবে। কিন্তু ইদানিং স্বীকৃতি বাস্তবায়নের প্রক্রিয়াটা কিছু ব্যক্তির কারণে ভিন্নদিকে চলে যাচ্ছে।
তিনি বলেন, দেওবন্দের উসুলে হাশতেগানার বাইরে স্বীকৃতি নেয়া হবে না বলে প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছিল কিন্তু হচ্ছে তার উল্টোটা। এছাড়াও গঠনতন্ত্র তৈরির বিষয়টি বেফাক ব্যতীত ৫ বোর্ডের আর কেউ জানেন না। আর এ কারণেই সঙ্কট তৈরি হয়েছে। এসবের সুরাহা করতেই আমরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে দেখা করেছি।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে ৫ বোর্ডের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ ৫ দাবি উত্থাপন করেন-
১. আলাদা ইউজিসির অধীনে আলাদা কওমি বিশ্ববিদ্যালয় নয়, বরং হাইআতুল উলইয়াকে ইউজিসির মান দেয়া।
২. হাআইতুল উলইয়ার খসড়া গঠনতন্ত্রটি বেফাক এককভাবে গঠন করেছে। খসড়া গঠনতন্ত্রে কিছু সংযোজন-বিয়োজন করা।
৩. হাইআতুল উলইয়ায় বেফাক থেকে যেভাবে একজন কো-চেয়ারম্যান দেয়া হয়েছে, তার সাথে অন্য ৫ বোর্ড থেকেও একজনকে কো-চেয়ারম্যান বানানো।
৪. গঠনতন্ত্রে বেফাক থেকে আজীবন চেয়ারম্যান থাকার যে বিধানটি রয়েছে, সেটা পরিবর্তন করে পরবর্থীতে হাইআর সদস্যদের মাধ্যমে চেয়ারম্যান নির্বাচন করা।
৫. এক বোর্ডের মাদরাসা অন্য বোর্ডে যেতে পারবে না মর্মে খসড়া গঠনতন্ত্রে যে আইন আছে, সেটা প্রত্যাহার করে মাদরাসাগুলোকে তাদের ইচ্ছাধীন ছেড়ে দেয়।
বৈঠক শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসভবন বেরিয়ে এসে মাওলানা এনামুল হক বহরগ্রামী মুঠোফোনে কওমিকণ্ঠকে বলেন, আমরা ৫ বোর্ডের দায়িত্বশীলরা মিলে মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাত করে আমরা ৫ দাবী উত্থাপন করেছি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমাদেরকে আশ্বাস দিয়েছেন। আশা করি- শীঘ্রই এর একটা সুরাহা হবে।
এছাড়া আজ বিকেলে ৫টি বোর্ডের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিবের সাথে এবং কাল বা পরশু বিকেলে শিক্ষামন্ত্রীর সাথে দেখা করবেন বলে জানা গেছে।
৬টি কওমি শিক্ষাবোর্ড নিয়ে গঠিত হাইআতুল উলয়ার অন্য ৫টি বোর্ড হলো- আযাদ দ্বীনী এদারা, সিলেট, তানজিমুল মাদারিসিল কওমিয়া, জাতীয় দীনি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড, বেফাকুল মাদারিসিল কওমিয়া গওহরডাঙ্গা বোর্ড ও ইত্তেহাদুল মাদারিসিল কওমিয়া।
-কওমিকণ্ঠ ডটকম

About Islam Tajul

mm

এটাও পড়তে পারেন

কওমি মাদরাসা কল্যাণ ট্রাস্ট, বাংলাদেশ

খতিব তাজুল ইসলাম ট্রাস্টের প্রয়োজনীয়তাঃ কওমি অংগন একটি স্বীকৃত ও তৃণমূল প্লাটফর্ম। দেশ ও জাতির ...