শুক্রবার, ১৪ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ সকাল ১০:১৮
Home / প্রতিদিন / শেখ সাদির ‘চিন্তা’ থেকে ইউনিসেফের বানানো ভিডিও
শেখ সাদির সমাধি ও মিউজিয়াম

শেখ সাদির ‘চিন্তা’ থেকে ইউনিসেফের বানানো ভিডিও

শেখ সাদির সমাধি ও মিউজিয়াম
শেখ সাদির সমাধি ও মিউজিয়াম

ভালো পোশাক পরলে ভালো অভ্যর্থনা পাওয়া যায়৷ আর পোশাক বা চেহারা খারাপ হলে জোটে তিরস্কার৷ মহাকবি শেখ সাদির বেলায়ও ঘটেছিল সেই ঘটনা৷ কিন্তু তিনি যেভাবে জবাব দিয়েছিলেন, ছোট্ট এই মেয়েটি সেই জবাব দিতে পারেনি৷

ইউনিসেফ সম্প্রতি একটি ভিডিও প্রতিবেদন বানিয়েছে৷ যার শিরোনাম ‘উড ইউ স্টপ ইফ ইউ স দিস গার্ল অন দ্য স্ট্রিট?’ অর্থাৎ ‘এই মেয়েটিকে রাস্তায় দেখলে তুমি কি একটু দাঁড়াবে?

আনানো ছ’বছরের শিশু অভিনয় শিল্পী৷ জর্জিয়ার একটি রাস্তায় মেকআপ করে, সুন্দর জামা পরিয়ে দাঁড় করানো হয়েছিল তাকে৷ একলা দেখে অনেকেই এগিয়ে এসে তার কুশল-সংবাদ নিয়েছিল, চেয়েছিল সে হারিয়ে গেছে কিনা৷ মজা হলো, এরপর মেয়েটির মুখে কালি-ঝুলি লাগিয়ে, নোংরা পোশাক পরিয়ে আবারো দাঁড় করানো হয়েছিল রাস্তায়৷ অবাক কাণ্ড! এবার মানুষের প্রক্রিয়া ছিল একেবারেই ভিন্ন৷ আর এই ভিডিওটি দেখলেই তা বুঝবেন৷

রাস্তার পর এক রেস্তোরাঁয় একইভাবে আনানোকে দু’বার দু’রকমের পোশাক পরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল৷ সেখানেও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটতে দেখা গেল৷

ভালো পোশাকে তার প্রতি মানুষের আগ্রহ যে কতটা ছিল, তা দেখলেই বুঝবেন৷ কিন্তু নোংরা পোশাকে মানুষের প্রতিক্রিয়া এই ছোট্ট মেয়েটি সহ্য করতে পারেনি৷ যারা পরীক্ষাটি করছিলেন, তারা তখন বাধ্য হন এটি আর না চালিয়ে যাওয়ার৷ কেননা আনানো ভীষণ বিমর্ষ হয়ে পড়েছিল মানুষের আচরণে৷ তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল – কেন এতটা বিমর্ষ হলে তুমি? জবাব আনানো বলেছিল, ‘‘জামা-কাপড় নোংরা, মুখে কালি – এটা আমার মোটেই ভালো লাগছে না৷” আসলে আনানো নোংরা পোশাকে খুবই দুঃখী হয়ে পড়েছিল৷ তার সবচেয়ে কষ্ট লেগেছিল, যখন ঐ পোশাক পরার ফলে মানুষ তাকে চলে যেতে বলেছিল, তাড়িয়ে দিচ্ছিল৷

সে একজন ক্ষুদে শিল্পী হওয়ার পরেও যখন তার প্রতি মানুষের এমন প্রতিক্রিয়া, তাহলে রাস্তায় পড়ে থাকা লাখো, অবহেলিত শিশুদের কথা একবার ভাবুন৷ একবার ভাবুন তাদের কেমন কষ্ট হয়!

ইউটিউবে এই ভিডিওটি দেখা হয়েছে ২১ লাখ ৩৮ হাজার বার৷ ফেসবুকে আর শেয়ার হয়েছে প্রায় ২৯ লাখ বার৷

সৌজন্যে : ডয়েচে ভেলে

About Abul Kalam Azad

mm

এটাও পড়তে পারেন

প্যান্ডেলের বাইরে সাউন্ড ব্যবহার করা নাজায়েয!

মুহিউদ্দীন কাসেমী: কিছুদিন আগে কী এক কাজে যেন ঢাকায় গেলাম। এশার সময় ট্রেনে ফিরলাম। স্টেশনে ...