শনিবার, ১৯শে আগস্ট, ২০১৭ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ রাত ৮:৪৬
Home / খিলাফাহ / ইসলামী রাজনীতির মূলনীতিঃ
মাওলানা মামুনুল হক

ইসলামী রাজনীতির মূলনীতিঃ

মুহাম্মাদ মামুনুল হক্ব:

কারো কথা বা কাজের উপর আস্থার জন্য তার দুটি বৈশিষ্ট্যের উপর নির্ভর করতে হয় ৷ একটি হল তার যোগ্যতা অপরটি হল তার বিশ্বস্ততা ৷
ইলমে হাদীস নিয়ে পড়াশোনা তো ওলামায়ে কেরামই করে থাকেন ৷ আর নির্ভরতার জন্য যোগ্যতা এবং বিশ্বস্ততার অপরিহার্যতার বিষয়টি হাদীস শাস্ত্রে যতটা স্পষ্টভাবে আলোচনা করা হয়েছে অন্য কোথাও এভাবে করা হয়নি ৷ তাই এ বিষয়ে ওলামাদের চেয়ে অন্য কারো বেশি বুঝার কথা নয় ৷ তেমনি বিশ্বস্ততা আর যোগ্যতার মধ্যে কোনটির গুরুত্ব কোন পর্যায়ে, সেটাও তারাই সব চেয়ে ভালো বুঝবেন ৷
হাদীস শাস্ত্রের আলোচনায় বিশ্বস্ততাকে বলা হয় “আদালাহ” আর যোগ্যতা হলো “যবত” ৷ হাদীস বর্ণনাকারী আদালাহ এবং যবতে উচ্চ মানের হলে সে হাদীস সহীহ হয় ৷ আর যদি যবতে ঘাটতি থাকে, আদালাহ ঠিক থাকে তাহলে সাধারণত হাদীস যয়ীফ সাব্যস্ত হয় ৷ পক্ষান্তরে আদালাহ যদি ঠিক না থাকে যবত যতই ভালো থাকুক তার বর্ণিত হাদীস মওযূ’ বলে বিবেচিত হয় ৷ অর্থাৎ যবত বা যোগ্যতার ঘাটতি এক পর্যায় পর্যন্ত মেনে নেয়া হয় এবং সে ঘাটতি পুরনের জন্য সাপোর্টিং পাওয়া গেলে হাদীস “সহীহ লিগাইরিহী” হয় ৷ কিন্তু আদালাহ বা বিশ্বস্ততার ঘাটতি কোনো কিছু দিয়েই পুরন হবার নয় ৷ তার বর্ণিত হাদীসকে মওযূ’ বা জাল হাদীস বলা হয় ৷ আমরা আদালাহ বা বিশ্বস্ততার এই গুরুত্ব শাস্ত্রীয়ভাবে পড়াশোনা করি কিন্তু দুঃখজনকভাবে বাস্তব আমলের ক্ষেত্রে আমরা তা বেমালুম ভুলে যাই ৷

ইসলামী রাজনীতির ক্ষেত্রে এই আদালাহ বা বিশ্বস্ততার গুরুত্ব ঠিক সেভাবে দিতে না পারায় আমাদেরকে অনেক মাশুল গুণতে হয়েছে ও হচ্ছে প্রতিনিয়ত ৷ আমাদেরকে বুঝতে হবে এবং বিশ্বাস করা শিখতে হবে যে, বিশ্বস্ততায় ঘাটতি থাকলে তা হাজার যোগ্যতা দিয়েও পুরন হবার নয় ৷ যে বা যারা জাতির এবং দ্বীনের স্বার্থ নিয়ে সওদা করবে, তারা যত যোগ্য হোক, তাদের বক্তব্য যতই আবেগঘন বা অগ্নিঝরা হোক, তারা জ্ঞান ও যোগ্যতায় যতই পারদর্শী হোক তাদের হাতে কখনই জাতীয় নেতৃত্বের লাগাম তুলে দেয়া যাবে না ৷ আন্দোলন সংগ্রামের ক্ষেত্রে যাদের ব্যপারে কেনা-বেচার অভিযোগ আছে তাদের হাজার যোগ্যতার চেয়ে এই একটি অযোগ্যতাকে ভারি মনে করতে হবে ৷ তাদের চটকদার কথায় ধোকা খাওয়াটা সচেতনতার পরিচয় নয় ৷ মনে রাখতে হবে প্রতারকের কথা সব সময়ই মিষ্টি হয় ৷ ইসলামী ইতিহাসের দুঃখজনক প্রতিটি অধ্যায় রচিত হয়েছে গাদ্দারদের হাতে ৷ আর বিস্ময়করভাবে গাদ্দাররা সব সময়ই খুব চৌকস ও যোগ্য হয়ে থাকে ৷

About Islam Tajul

mm

এটাও পড়তে পারেন

বাবা, ভাই ও ছেলের হাতেই মুসলিম নারীরা বঞ্চিত হয়েছে বেশি

শাইখ আবদুস সালাম আজাদী: -“সালাম ভাই, ঈদের দিনে আপনাকে এইভাবে বলছি বলে রাগ কইরেন না”। ...