বৃহস্পতিবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ সকাল ৯:৪৮
Home / সমকালীন / শুধু উদ্বাস্তুদের জন্য একটি দেশ?

শুধু উদ্বাস্তুদের জন্য একটি দেশ?

এ বছরের গোড়ার দিকে রোহিঙ্গা উদ্বাস্তু সমস্যাটি যখন বিশ্বের পত্রপত্রিকায় শিরোনাম, তখন বাংলাদেশে কেউ কেউ এমন একটি প্রস্তাব রেখেছিলেন, শুধু উদ্বাস্তুদের জন্য একটি আলাদা রাষ্ট্র গঠনের মাধ্যমে এ সমস্যার সমাধান করা যেতে পারে। এ প্রস্তাবটির বিষয়ে প্রথম আলো মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের অভিমত জানতে চাইলে তারা পুরো বিষয়টি ‘স্পেকুলেশন’ বলে বাতিল করে দিয়েছিল।
গত সপ্তাহে ঠিক সেই প্রস্তাবটি করেছেন মিসরের ক্রোড়পতি ব্যবসায়ী নাগিব সাওইরিস। তিনি জানিয়েছেন, গ্রিস ও ইতালির সরকার সম্মত হলে তিনি ভূমধ্যসাগরে তাদের কোনো একটি জনবিহীন দ্বীপ কিনতে আগ্রহী। এই দ্বীপটি হবে পৃথিবীর উদ্বাস্তু জনগোষ্ঠীর জন্য। এই দ্বীপ কিনতে ও সেখানে বাস করার জন্য প্রয়োজনীয় অবকাঠামো গড়ে তুলতে তিনি এক কোটি থেকে দশ কোটি ডলার ব্যয় করতে প্রস্তুত। বার্তা সংস্থা এএফপির কাছে সাইওরিস এ প্রস্তাবের সত্যতা স্বীকার করেছেন।
গত মঙ্গলবার পাঠানো এক টুইটার বার্তায় তিনি গ্রিস ও ইতালির উদ্দেশে লিখেছেন, ‘আমার কাছে একটি দ্বীপ বিক্রি করুন। আমি তার নাম রাখব স্বাধীনতা, সেখানে থাকবে শুধু উদ্বাস্তুরা। আমি তাদের জন্য চাকরির ব্যবস্থা করব, যাতে তারা সেখানে নিজেরাই একটি নতুন দেশ গড়ে নিতে পারে।’
মিসরীয় ধনকুবের সাওইরিস যেসব ব্যবসা ও সম্পত্তির মালিক, তার মোট মূল্যমান তিন বিলিয়ন ডলার বা তার চেয়েও বেশি। গ্রিস বা ইতালি সরকার তার প্রস্তাবটির কোনো তাৎক্ষণিক জবাব দেয়নি।
সাওইরিসের প্রস্তাবটি অবশ্য একদম মৌলিক নয়। এ বছর জুলাইতে মার্কিন ব্যবসায়ী জ্যাসন বুজি উদ্বাস্তু সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে ভূমধ্যসাগরে কোথাও একটি দ্বীপ কেনার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। উদ্বাস্তুদের সেখানে আশ্রয় দিলে ও উপার্জনের ব্যবস্থা করা গেলে এখন মধ্যপ্রাচ্য ও দক্ষিণ এশিয়া থেকে আসা আশ্রয়প্রার্থীদের নিয়ে যে সংকটের সৃষ্টি হয়েছে, তার সমাধান সম্ভব। তাঁর প্রস্তাবের পক্ষে জনসমর্থন আদায়ের লক্ষ্যে বুজি একটি ওয়েবসাইট করেছেন, তবে এমন একটি দ্বীপ ক্রয়ে তিনি নিজে অর্থ জোগান দেবেন, এমন কথা অবশ্য তিনি বলেননি।
শুধু উদ্বাস্তুদের জন্য একটি নতুন দেশ তৈরির এ প্রস্তাব যতই অবাস্তব মনে হোক না কেন, সবাই তাকে এককথায় বাতিল করে দেননি। ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকাকে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্বাস্তু-বিষয়ক অধ্যাপক আলেকজান্ডার বেটস বলেছেন, ‘প্রস্তাবটি “ইউটোপিয়ান” বা কাল্পনিক। কিন্তু উদ্বাস্তু সমস্যা সমাধানে নতুন ভাবনা হিসেবে তাকে রূপকার্থে গ্রহণ করা যেতে পারে। উদ্বাস্তু সমস্যা সমাধানে আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে এখন আমাদের চাই নতুন ভাবনা।’

About Islam Tajul

mm

এটাও পড়তে পারেন

ডাক্তার যখন ডাকাত! (১ম – ৪র্থ পর্ব)

ইমদাদুল হক নোমানী:: ডাক্তার যখন ডাকাত!  (১ম পর্ব) মানুষ মাত্রই কম বেশী অসুস্থ হয়। একজন ...