শনিবার, ২৫শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
কমাশিসা পরিবারবিজ্ঞাপন কর্নারযোগাযোগ । সময়ঃ রাত ২:০৬
Home / কওমি অঙ্গন / ‘জামিয়া ইসলামিয়া আরাবিয়া’ উমেদনগর

‘জামিয়া ইসলামিয়া আরাবিয়া’ উমেদনগর

জামিয়া ইসলামিয়া আরাবিয়া’ উমেদনগর পরিচিতি:

ইমরান আহমাদ:

নাম: জামিয়া ইসলামিয়া আরাবিয়া। নামকরণ: শাইখুল ইসলাম আল্লামা হুসাইন আহমদ মাদানি রাহ. প্রতিষ্ঠানের নাম রাখেন। প্রতিষ্ঠা সন: ১৯৫৮ ঈসায়ি। ভৌগলিক অবস্থান: খোয়াই নদীর উত্তর তীরে হবিগঞ্জ জেলা সদরের উমেদনগরস্থ নবীগঞ্জ রোড। প্রতিষ্ঠাকালীন প্রেক্ষাপট: ঈসায়ী ১৯৫৮ সাল। শাইখুল আরব ওয়াল আজম আল্লামা হুসাইন আহমদ মাদানি রাহ. এর অনুপ্রেরণা ও ইঙ্গিতে খোয়াই তীরে গড়ে ওঠে দেশের অন্যতম বৃহৎ দ্বীনী এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠাকালীন মুহতামিম ছিলেন আরিফ বিল্লাহ মাওলানা মিসবাহুজ্জামান রাহ.। প্রতিষ্ঠাকাল থেকেই এর সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত ছিলেন মাওলানা সুলাইমান রাহ., হাজি ফজলুল করীম মুনশী রাহ., হাজি আব্দুল কাদির ও হাজি ইউনুস আহমদ সাহেব। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই মাদরাসা পরিচালনায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন মাওলানা শরীফউদ্দিন সাহেব। তিনি কয়েক বছর প্রতিষ্ঠানটির মুহতামিমও ছিলেন। মাদরাসার প্রতিষ্ঠাকালীন প্রধান পৃষ্ঠপোষক ছিলেন মাওলানা আব্দুল মতিন চৌধুরী শায়খে ফুলবাড়ী রাহ.। বর্তমান মুহতামিম: বরেণ্য শাইখুল হাদীস নন্দিত তাফসীর বিশারদ আল্লামা হাফিজ তাফাজ্জুল হক হবিগঞ্জী দা.বা.।

১৯৭৫ সালে তখনকার খ্যাতিমান উলামা-মাশায়েখ ও এলাকাবাসীর আগ্রহে তিনি জামিয়া পরিচালনার সার্বিক দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। অদ্যাবধি নিষ্ঠা ও প্রজ্ঞার সাথে সে দায়িত্ব তিনি আঞ্জামও দিয়ে আসছেন। মূলত তার যোগ্য পরিচালনায়ই জামিয়া আজ বিশ্ব দরবারে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছে। বর্তমান শাইখুল হাদীস: মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে সেই টাইটেল ক্লাস উদ্বোধনের দিন থেকেই আল্লামা তাফাজ্জুল হক দা.বা. শাইখুল হাদীসের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। আজ পর্যন্ত তিনি জামিয়ার প্রধান শাইখুল হাদীস হিসেবে অত্যন্ত সুনামের সাথে বুখারি শরীফের দারস দিয়ে আসছেন। বর্তমানে জামিয়ার শাইখে ছানী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন আল্লামা মুফতি আব্দুল কাইয়ূম শায়খে কালাইঞ্জুরী দা. বা.।

বর্তমান নাযিমে তালীমাত: মাওলানা মুফতি আব্দুল হক দা.বা.। বর্তমান প্রধান মুফতি: মাওলানা মুফতি আব্দুল কাইয়ূম, শায়খে কাটাখালী দা. বা.। বর্তমান আসাতিজায়ে কেরাম: ৩৩ জন। কর্মচারী: ৩ জন। গড় বেতন: ৫,০০০/= বর্তমান ক্লাস: নূরানী শিশু শ্রেণি থেকে সর্বোচ্চ স্তর টাইটেল ক্লাস পর্যন্ত। উচ্চতর গবেষণা কোর্স: তাখাসসুস ফিল ফিক্বহ, তাখাসসুস ফিত্ তাফসীর ও স্বল্প পরিসরের কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্স। শিক্ষাবোর্ড: বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়্যাহ বাংলাদেশ ও দ্বীনি শিক্ষা বোর্ড হবিগঞ্জ। বর্তমান ছাত্র সংখ্যা: প্রায় ৫০০ জন। অাবাসিক ছাত্র সংখ্যা: ২০৫ জন। বার্ষিক ব্যায়: কমবেশি ৮৫,০০,০০০/= আয়ের উৎস: মৌসুমী চাঁদা, দ্বীন দরদী জনগনের অনুদান ও সদকায়ে জারিয়া। বিভিন্ন সময়ে যাদের পদধুলিতে ধন্য জামিয়া: ১. ফেদায়ে মিল্লাত আল্লামা আসআদ মাদানি রাহ. ভারত। ২. হাফিজুল হাদীস আল্লামা আব্দুল্লাহ দরখাস্তি রাহ. পাকিস্তান। ৩. আল্লামা সাইয়্যিদ আরশাদ মাদানি দা. বা. ভারত। ৪. আল্লামা সাইয়্যিদ আসজাদ মাদানি দা. বা. ভারত। ৫. আল্লামা শায়খ আব্দুল হক আজমী রাহ. ভারত। ৬. আল্লামা শায়খ আবু উমর ইয়াকুবী দা. বা. ফিলিস্তিন। এছাড়া দেশের প্রায় সব বরেণ্য বুযুর্গরা অজস্রবার জামিয়া পরিদর্শন করে গিয়েছেন।

লেখক: সুসাহিত্যিক, ঔপন্যাসিক, শিক্ষক ও গবেষক।

About Islam Tajul

mm

এটাও পড়তে পারেন

স্বতন্ত্র কওমি বিশ্ববিদ্যালয় নয় হাইআতুল উলইয়াকেই ইউজিসির মান দেয়া চাই : মুফতি মুহাম্মদ আলী

কওমি অঙ্গনে বর্তমানে স্বীকৃতি একটি প্রধান ইস্যু৷ স্বীকৃতি নিয়ে কম জল ঘোলা করা হয়নি। চলমান ...